• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

ধান চুরির মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৯ জন কারাগারে


লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: আগস্ট ২০, ২০২৩, ০৭:৩৬ পিএম
ধান চুরির মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৯ জন কারাগারে

ধান চুরির মামলায় লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরবাদাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ ৯ জনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।  

রোববার (২০ আগস্ট) দুপুরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক তারেক আজিজ এ আদেশ দেন।

বাদীর আইনজীবী সাজ্জাদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ধান চুরির মামলায় চরবাদাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন জসিমসহ আসামিরা আদালতে জামিন আবেদন করেন। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। 

ইউপি চেয়ারম্যান ছাড়াও মামলায় অন্য আসামিরা হলেন আদনান আমিন, ফরহাদ হোসেন, ইফতেখার হোসেন শাওন, নুরুল আমিন, অজি উল্যাহ, খোরশেদ আলম, নোমান পাটওয়ারী, সফি উল্যাহ। তাদের বাড়ি রামগতি উপজেলার চরসীতা গ্রাম ও কমলনগর উপজেলার চরলরেন্স গ্রামে।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০২২ সালের ১২ ডিসেম্বর রাতে চেয়ারম্যান জসিম ও তার বড় ভাই নুরুল আমিন, ছেলে ইফতেখার হোসেন শাওনের নেতৃত্বে অন্য আসামিরা তোরাবগঞ্জ গ্রামে বাদীর ৪ একর ৪৫ শতাংশ জমিতে থাকা ২৫০ মণ আমন ধান কেটে নিয়ে যান। ধানগুলোর বাজার মূল্য প্রায় আড়াই লাখ টাকা। ধান লুটে বাধা দেওয়ায় বাদীকে মারধর ও শ্লীলতাহানি করা হয়। এ ঘটনায় ১৫ ডিসেম্বর জামেনারা আক্তার বাদী হয়ে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।  

আদালত ঘটনা তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। চলতি বছর ১৫ মার্চ পুলিশ আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিলে তাতে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়।  

আদালত সূত্রে জানা যায়, রোববার আদালতে মামলার শুনানির পূর্বনির্ধারিত দিন ধার্য ছিল। এতে বাদী ও আসামিরা আদালতে উপস্থিত হন। এ সময় আসামিরা জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে আসামিদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

Link copied!