• ঢাকা
  • বুধবার, ১৯ জুন, ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১, ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

জোড়ালাগা সন্তান প্রসব


পাবনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৪, ২০২১, ০৯:৪৭ পিএম
জোড়ালাগা সন্তান প্রসব

পাবনার ঈশ্বরদীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে আছিয়া বেগম নামে এক গৃহবধু দুই মাথা, চার হাত ও চার পা বিশিষ্ট একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেছেন।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে ঈশ্বরদীর আলো জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। প্রসবের পরে সন্তানটি মারা গেলেও মা সম্পুর্ণ সুস্থ রয়েছেন।

আছিয়া নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার রাখশা গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী। এটি তৃতীয় সন্তান প্রসবের ঘটনা।

ঈশ্বরদী শহরের আলো জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকালে প্রসব বেদনা নিয়ে প্রসূতি আছিয়া বেগম নাটোর থেকে এলে পরিবার এই হাসপাতালে ভর্তি করে। ভর্তির পর দুপুরের দিকে সিজারিয়ান অপারেশন ছাড়াই বাচ্চা প্রসব হলে দুই মাথা, চার হাত, চার পা বিশিষ্ট এক পুত্র সন্তান জন্ম লাভ করে। প্রসবের পরপরই সন্তান মারা গেলেও প্রসূতি সম্পুর্ণ সুস্থ রয়েছেন।

প্রসূতির স্বামী রবিউল ইসলামের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, “স্ত্রী প্রসব বেদনা শুরু হলে ঈশ্বরদী শহরের এই হাসপাতালে নিয়ে আসি। নরমাল ডেলিভারির পরে সন্তানটি মৃত অবস্থা দেখতে পাই। অনেক আশা-আকাঙ্খা নিয়ে ছিলাম যে তৃতীয় সন্তানের বাবা হব। কিন্তু ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস সন্তান হলো ২ মাথা,  ৪ পা ও ৪ হাত বিশিষ্ট। জন্মের পরই মারা গেল।”

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শফিকুল ইসলাম শামীম জানান, মা সম্পুর্ণ  সুস্থ থাকলেও সন্তানটি মারা গেছে। সিজার না করেই নরমালে সন্তান প্রসব করানো হয়েছে। মেডিকেল সার্টিফিকেট অনুযায়ী আরও ১ মাস ২১ দিন ডেলিভারি হওয়ার সময় রয়েছে। এর আগেই সন্তান প্রসব হয়েছে। এটি তৃতীয় সন্তান প্রসবের ঘটনা এই নারীর বৈবাহিক জীবনে। 

Link copied!