• ঢাকা
  • শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০, ২০ শা’বান ১৪৪৫

যেসব কথা কখনো স্ত্রীকে বলবেন না


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১৮, ২০২৩, ০১:২৫ পিএম
যেসব কথা কখনো স্ত্রীকে বলবেন না

পারস্পারিক সম্মান না থাকলে দাম্পত্য জীবনে সুখী হওয়া অসম্ভব। সম্মান থাকলে তার হাত ধরে আসবে ভালোবাসাও। কেউ যদি তার স্ত্রীকে অসম্মান করে, অপমান করে কথা বলে, কষ্ট দেয় তবে সেই সম্পর্ক রং হারাতে বাধ্য। কারণ মানুষ অসম্মান মেনে নিয়ে একসঙ্গে পথ চলতে পারে না। স্বামীর বলা একেকটি কথা স্ত্রীর বুকে তীর হয়ে বিঁধতে পারে। তাই রাগের বশে হোক বা অন্য যেকোনো সময় কথা বলার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন। কখনোই এই ৪ কথা আপনার স্ত্রীকে বলবেন না, কারণ এই কথাগুলো তাকে সবচেয়ে বেশি কষ্ট দেয়-

বেরিয়ে যেতে বলা
একজন নারী একসঙ্গে সংসার করার জন্যই নিজের পরিবারসহ সবকিছু ছেড়ে আসে। নতুন জীবনের স্বপ্ন দেখে নতুন একটি পরিবারে এসে। নিজের মধ্যে অনেক পরিবর্তন নিয়ে আসে। তাই তার ওপর রাগ করে বাড়ি ছাড়তে বলবেন না। কারণ বাড়ি ও সংসার দুজনেরই।

জীবন নষ্ট হয়ে গেছে
যে মানুষটি এসে নিজের অনেক ইচ্ছা-আকাঙ্ক্ষা ভুলে আপনাকে ভালো রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তাকে কখনো বলবেন না তোমার জন্য জন্য আমার জীবন শেষ হয়ে গেছে, নষ্ট হয়ে গেছে। যদি কোনো বিষয়ে তার ওপর মনোক্ষুণ্ণ হন তবে ঠান্ডা মাথায় বসে তার সঙ্গে কথা বলুন। ঝাগড়া কোনো সমাধান নয়। কারণ রাগের মাথায় মানুষ এমন অনেক ভুলভাল কথা বলে বসে, যার কারণে পরবর্তীতে সংসার টিকিয়ে রাখাই কঠিন হয়ে যায়।

তোমাকে বিয়ে করে ভুল করেছি
আপনি যখন বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন, তখন নিশ্চয়ই ভেবেচিন্তেই নিয়েছিলেন। তাহলে পরবর্তীতে স্ত্রীকে কখনো এই কথা বলবেন না যে, ‘তোমাকে বিয়ে করে ভুল করেছি’। কারণ বিয়ের সিদ্ধান্তটি যদি ভুলও হয়, তার দায়ভার আপনার স্ত্রীর নয়, আপনার। সেই দায় তার ওপর চাপাবেন না। স্বামীর কাছ থেকে এমন কথা শুনলে স্ত্রীর কষ্ট পাওয়া খুবই স্বাভাবিক।

তোমার মতামতের গুরুত্ব নেই
স্ত্রী মানে সংসারের সবকিছুতেই তার অধিকার। সংসার চালাতে গিয়ে দুজনেরই মতামত সমান জরুরি। যেকোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে অবশ্যই আপনার স্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে নেবেন। কিন্তু সেসব না করে স্বেচ্ছাচারিতা করা এবং স্ত্রীর মতামতের গুরুত্ব না দেওয়া চরম অবহেলা। এমনটা কখনো করবেন না।

Link copied!