• ঢাকা
  • বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ক্যান্সারের উপাদান সন্দেহে ভারতের মসলা নেপালেও নিষিদ্ধ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ১৭, ২০২৪, ০৩:২৫ পিএম
ক্যান্সারের উপাদান সন্দেহে ভারতের মসলা নেপালেও নিষিদ্ধ
মসলা। ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় মশলার মধ্যে ইথিলিন অক্সাইড নামক কীটনাশকের উপস্থিতি উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। গেল এপ্রিল মাসে এই অভিযোগ তুলে ভারতের দুই ব্র্যান্ডের মসলাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে সিঙ্গাপুর। সেই ঘটনার কয়েক দিনের মধ্যেই হংকংও একই সিদ্ধান্ত নিয়ে বসে। এবার তৃতীয় দেশ হিসাবে নিষেধাজ্ঞার পথে হাঁটল নেপাল। এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতীয় আনন্দবাজার পত্রিকা।

অভিযোগ উঠেছে, মসলা জীবাণুমুক্ত করার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে ইথিলিন অক্সাইড নামক সেই কীটনাশক। তবে মানবশরীরের পক্ষে ইথিলিন অক্সাইড মিশ্রিত মশলা অত্যন্ত ক্ষতিকর। এতে ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত এপ্রিলে ইথিলিন অক্সাইডের উপস্থিতির অভিযোগ তুলে ভারতের দুই ব্র্যান্ডের মসলাকে নিষিদ্ধ করে সিঙ্গাপুর। কয়েকদিন পর একই অভিযোগ তুলে একই সিদ্ধান্ত নেয় হংকংও। সেই ধারাবাহিকতায় এবার নেপালও ভারতের মসলাকে নিষিদ্ধ করল।

ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে নেপালের খাদ্য প্রযুক্তির মুখপাত্র মোহন কৃষ্ণ মহারাজান বলেছেন, এভারেস্ট ও এমডিএইস ব্র্যান্ডের মসলায় ক্ষতিকারক রাসায়নিক পাওয়ার খবর আসে আমাদের কাছে। এরপরই সেসব মসলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

এদিকে, ভারতীয় মসলাগুলোতে ক্যান্সার সৃষ্টির উপাদান ইথিলিন অক্সাইডের উপস্থিতি খতিয়ে দেখতে শুরু করেছে নেপালের খাদ্য প্রযুক্তি ও মান নিয়ন্ত্রণ বিভাগ। এভারেস্ট ও এমডিএইস ব্র্যান্ডের মসলায় ক্ষতিকর রাসায়নিক আছে কিনা, অথবা থাকলেও তা ঠিক কী ধরনের, খতিয়ে দেখা হচ্ছে সব দিকই।

পরীক্ষা নিরীক্ষার পর চূড়ান্ত রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে বলে জানিয়েছে নেপালের কর্তৃপক্ষ।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে উদ্ধৃত আনন্দবাজার লিখেছে, ভারতীয় মসলার খবর পৌঁছে গেছে উন্নত দেশগুলোতেও। বিশেষত, এভারেস্ট ও এমডিএইস ব্র্যান্ডের মসলার পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হচ্ছে আমেরিকা, নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াতেও। তবে এসব দেশে ভারতীয় মসলা নিয়ে উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা থাকলেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি।

Link copied!