• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

শ্রীলঙ্কায় সংকট আরও বাড়বে: নতুন প্রধানমন্ত্রী


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ১৪, ২০২২, ০১:২৮ পিএম
শ্রীলঙ্কায় সংকট আরও বাড়বে: নতুন প্রধানমন্ত্রী

চরম অর্থ ও রাজনৈতিক সংকটে ভুগছে শ্রীলঙ্কা। জনগণের বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে। নিয়োগ দেওয়া হয়েছে নতুন প্রধানমন্ত্রী। তবে দেশে অর্থনৈতিক সংকট কাটিয়ে ওঠার আগে তা আরও বাড়বে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন নতুন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে।

দায়িত্ব গ্রহণের পর বিবিসির কাছে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে। তিনি জানান, দেশের পরিবারগুলোর তিন বেলা খাবার নিশ্চিত করা হবে তার প্রধান কাজ।

নতুন প্রধানমন্ত্রী শ্রীলঙ্কার অর্থনীতিকে ‘বিধ্বস্ত’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। তবে তিনি শ্রীলঙ্কানদের আশ্বস্ত করেছেন, “ধৈর্য ধরুন, আমি স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনব।”

আরও আর্থিক সাহায্যের জন্য বিশ্বের কাছে আবেদন জানিয়ে তিনি বলেন, “ক্ষুধার সংকট থাকবে না, আমরা খাদ্য খুঁজে পাব।”

সাক্ষাৎকারে বিক্রমাসিংহে জানান, তিনি বিক্ষোভকারীদের অনুভূতির সঙ্গে একমত হয়েছেন। যারা প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। কিন্তু বলেছেন তা হবে না বলেও তিনি জানান।

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে ৬৮ বছর বয়সী এক নারী এএফপিকে বলেন, “আমাদের কেরোসিন নেই, পেট্রল নেই, ডিজেল নেই, রান্নার গ্যাস নেই এবং কাঠের চুলা পর্যন্ত নেই। আমরা বাচ্চাদের খাওয়ানোর জন্য প্রতিদিন লড়াই করছি। গত কয়েক দিনে খাবারের দাম তিন গুণ বেড়েছে। আমরা কীভাবে চলব।”

দক্ষিণ এশিয়ার ২ কোটি ২০ লাখ জনসংখ্যার দেশ শ্রীলঙ্কা। এই দ্বীপরাষ্ট্র ১৯৪৮ সালে স্বাধীন হওয়ার পর থেকে সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে। বিদেশ থেকে পণ্য আমদানির জন্যও প্রয়োজনীয় বৈদেশিক মুদ্রারও ঘাটতি রয়েছে। দেশের অর্থনৈতিক দুর্দশার কেন্দ্রবিন্দু হলো আমদানির ওপর অনেক বেশি নির্ভরশীলতা।

কোভিড মহামারিতে অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২০১৯ সালের গির্জা বোমা হামলায় পর্যটন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞরা অর্থনৈতিক অব্যবস্থাপনাকেও দায়ী করেছেন।

Link copied!