• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৩ মুহররম ১৪৪৫

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে ১০ লাখের বেশি মৃত্যু


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ১২, ২০২২, ০৭:১১ পিএম
করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে ১০ লাখের বেশি মৃত্যু

২০১৯ সালে শুরু করোনা মহামারির প্রকোপে সবচেয়ে বেশি প্রাণ হারিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এই পর্যন্ত ১০ লাখের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। ৩৩ কোটির জনসংখ্যার দেশে করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৮ কোটির বেশি মানুষ। যা বিশ্বের যেকোনো দেশের চেয়ে সর্বোচ্চ।

বিবিসি বলছে, বৃহস্পতিবার এই তথ্য প্রকাশ করেছে হোয়াইট হাউজ। মার্কিন প্রেসিডেন্ট এটিকে দুঃখজনক ধারাবাহিক ধাপ হিসেবে অভিহিত করেছেন। প্রতিটি মৃত্যুকে অপূরণীয় ক্ষতি হিসেবে দেখছেন তিনি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মতে, প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা প্রকাশিত তথ্যের চেয়ে অনেক বেশি।

যুক্তরাষ্ট্রে ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি প্রথম করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়। আক্রান্ত ব্যক্তি চীনের উহান থেকে ভ্রমণ করে ফিরেন। ৩৫ বছর বয়সী এই লোক ১০ দিন লড়াইয়ের পর সুস্থ্য হন। তিনি সুস্থ্য হওয়ার কিছুদিন পর যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

২০২০ সালে করোনার প্রথম ঢেউ শুরু হলে যুক্তরাষ্ট্রে গড়ে ২৫০০ মানুষের করোনা শনাক্ত হয়। ডিসেম্বর থেকে করোনা প্রতিরোধে টিকা কার্যক্রম শুরু করে মার্কিন সরকার। পরের বছর ২০২১ সালে দেশটিতে করোনার প্রকোপ ব্যাপক আকার ধারণ করে। গড়ে ৪ হাজার মানুষের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

ওহিওর ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির জনসংখ্যা ও পরিমাণগত স্বাস্থ্য বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মার্ক ক্যামেরন বলেন, “করোনায় মৃত্যুর ধাক্কা ছিল বিপজ্জনক উত্থান। আমাদের হাসপাতালগুলো পূর্ণ ছিল। নতুন মৃত্যু রোধ করা আমাদের জন্য কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছিল।”

যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি রাজ্যের মধ্যে সর্বোচ্চ করোনার প্রকোপ ছিল ক্যালিফোর্নিয়ায়। যেখানে ৯০ হাজার মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান। কাছাকাছি অবস্থানে রয়েছে টেক্সাস। এ রাজ্যে ৮৬ হাজার মানুষ মারা গেছেন। ফ্লোরিডায় ৭৪ হাজার ও নিউ ইয়র্কে ৬৮ হাজার মানুষ মারা গেছেন।

সিডিসি বলছে, মিসিসিপিতে করোনার প্রকোপে প্রতি ১ লাখ বাসিন্দার ৪১৮ জন করে মৃত্যু হয়েছে। এই সংখ্যা অ্যারিজোনায় ৪১৪, আলবামাতে ৩৯৯ ও পশ্চিম ভার্জিনিয়াতে ৩৮৪ জন।

Link copied!