• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪৫
রাসিক নির্বাচন

নগরীর বাইরেও উন্নয়ন করতে চান জাপার সাইফুল


রাজশাহী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মে ৭, ২০২৩, ০৩:২০ পিএম
নগরীর বাইরেও উন্নয়ন করতে চান জাপার সাইফুল

আসন্ন রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিজয়ী হতে পারলে সকল নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতসহ নগরীর বাইরেও উন্নয়ন করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) মেয়র প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপন।

শনিবার (৬ মে) বেলা ১১টার দিকে মহানগরীর গণকপাড়া মোড়ে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই পরিকল্পনার কথা জানান।

সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে সাইফুল বলেন, “আসন্ন পাঁচটি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে জাতীয় পার্টি থেকে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে। আমাকে রাজশাহী সিটিতে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। আশা করছি নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমরা ভালো ফলাফল করব।”

সাইফুল বলেন, “বাংলাদেশের উন্নয়নের রুপকার ও জাতীয় পার্টির প্রয়াত চেয়ারম্যান রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ রাজশাহী সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠা করেছেন। তাই এই সিটি করপোরেশনের উন্নয়ন ও সকল প্রকার নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করার জন্য কিছু পরিকল্পনা রয়েছে। রাজশাহীর মানুষ এখনো জাতীয় পার্টির সঙ্গে আছেন।”

নির্বাচনী ইস্তেহারে নাগরিক সুবিধা বাড়ানোর অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলে জানিয়ে সাইফুল ইসলাম স্বপন নগরীতে মশা নিধন, সুপেয় পানির ব্যবস্থা, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, ফুটপাত দখলমুক্ত করে জনগণের চলাচলের ব্যবস্থা করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

এছাড়া পকুর ভরাট বন্ধ করে জলাশয় সংরক্ষণ করা, শিক্ষা ও সংস্কৃতির উন্নয়ন, শিল্পায়ন ও কর্মমুখী শিক্ষার মাধ্যমে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা, টেন্ডারসহ সিটি করপোরেশনে যেসব অনিয়ম-দুর্নীতি আছে তা বন্ধ করার প্রতিশ্রুতি দেন।

কী ধরনের শিল্পায়ন প্রতিষ্ঠা ও কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “রাজশাহীতে টেক্সটাইল করাখানা, চিনিকল, রেশম শিল্প, সেরিকালচার কারখানা গুলোকে সরকারের সঙ্গে লিয়াজো করে চালুর উদ্যোগের চেষ্টা করব। এছাড়াও প্রাইভেট সেক্টর বা বিদেশি সংস্থাকে কাজে লাগিয়ে কর্মস্থানের জন্য জোর প্রদান করা হবে। প্রয়োজনে গার্মেন্টস সেক্টর প্রতিষ্ঠার ওপর জোর দেওয়া হবে।”

নগরীতে অন্তত ৪টি গার্মেন্টস কারখানা প্রতিষ্ঠা হলে প্রায় ২০ হাজার লোকের কর্মস্থানের ব্যবস্থা হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। নির্বাচিত হলে সিটির উন্নয়ন ছাড়াও সাইফুল ইসলাম শহরের বাইরে পদ্মার চরের উন্নয়নমূলক কাজ করবেন বলেও জানান।

এর আগে ২০১৮ সালেও রাসিক নির্বাচনে জাপার মহানগরের নেতা ওয়াসিউর রহমান দোলনকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল। তবে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তেই পরে দোলন নিজের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনকে সমর্থন দেন।

এবার জাতীয় পার্টি শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে থাকবে কিনা জানতে চাইলে প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপন বলেন, “এবার আমরা শেষ পর্যন্ত থাকব। জাতীয় পার্টি নির্বাচন বর্জন করবে না।”

সংবাদ সম্মেলনে জাপা চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জেলার আহ্বায়ক আবুল হোসেন, আরেক উপদেষ্টা রাহাত হোসেন, দলের জেলা কমিটির সদস্য সচিব শামসুদ্দিন রিন্টু, মহানগরের সদস্য সচিব ওয়াসিউর রহমান দোলন, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ডালিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

Link copied!