• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ১১ শা’বান ১৪৪৫

মনসুরী মিঠাইয়ে মজেছে সৈয়দপুরবাসী


নীলফামারী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: আগস্ট ১১, ২০২৩, ০৯:৩২ এএম
মনসুরী মিঠাইয়ে মজেছে সৈয়দপুরবাসী
সৈয়দপুরের ঐতিহ্য মনসুরী মিঠাই

নীলফামারীর সৈয়দপুরের হোটেল-রেস্তোরাঁয় প্রচুর পরিমাণে বিক্রি হয় মনসুরী মিঠাই। বেসন, ছোলার ডাল আর চিনি দিয়ে বানানো এই মিষ্টি সংরক্ষণ করা যায় বেশ কয়েক দিন। আর এই মিঠায়ের স্বাদে মজেছে সৈয়দপুবাসী।

সৈয়দপুর শহরের গোলাহাট রেল কলোনির বাসিন্দা মো. ভোলার দাবি, তিনি বংশপরম্পরায় মনসুরী মিঠাইয়ের কারিগর। সৈয়দপুরে তিনিই প্রথম মনসুরী মিঠাই বানিয়েছেন। ধীরে ধীরে এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

ভারতের বিহার রাজ্যের মুঙ্গের জেলার বাসিন্দা ছিলেন ভোলা। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের সময় বিহারী অধ্যুষিত জনপদ সৈয়দপুরে চলে আসেন তিনি।

সৈয়দপুর শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কে অবস্থিত দিলকুশা মিষ্টি ভান্ডার। পাকিস্তান আমলে ওই রেস্তোরাঁটির নাম ছিল দিলকুশা সুইটমিট। এর মালিক কামরানও এসেছিলেন বিহার থেকে। তার রেস্তোরাঁয় প্রতিদিন ১০ থেকে ১২ কেজি মনসুরী মিঠাই তৈরি হয়। ২০০৪ সালে মালিক কামরুদ্দিন মারা যান। এরপর ওই দোকান পরিচালনার দায়িত্ব পড়ে একমাত্র ছেলে মো. কাওসারের ওপর।

মিষ্টি ব্যবসায়ী কাওসার বলেন, “যতদূর জেনেছি মনসুরী মিঠাই প্রথম দিল্লিতে তৈরি হয়। মোগল সালতানাতে স্বাস্থ্যকর ওই মিষ্টান্নটি পরিবেশন করা হতো। ময়রারা খুব যত্নে করে মনসুরী বানাতেন। আফগানিস্তানের কাবুলের একজন ময়রার নাম ছিল মনসুর পাঠান। পরে সেই মনসুরের নামে মিষ্টির নাম হয়ে যায় মনসুর বা মনসুরী।”

কারিগর আব্দুল জলিল বলেন, “আমি হোটেলের কারিগর। দীর্ঘ ২০ বছর ধরে বাড়িতে মনসুরী মিঠাই তৈরি করে সৈয়দপুর ও আশপাশের হোটেল-রেস্তোরাঁয় বিক্রি করে আসছি। এ মিষ্টিটি সবার কাছে খুব প্রিয়।”

সৈয়দপুর পাহলয়ান সুইটসের স্বত্বাধিকারী সুখেন ঘোষ বলেন, “মনসুরী মিঠাই মূলত সস্তা দামের মিষ্টি। সয়াবিনসহ বিভিন্ন উপকরণের দাম বাড়লেও মনসুরী বিক্রি হয় ২২০ টাকা কেজি দরে। আমরা কম দামের ওই ঐতিহ্যবাহী মিষ্টিটির উৎপাদন টিকিয়ে রেখেছি। এখনো সৈয়দপুরে শতাধিক রেস্তোরাঁয় কমপক্ষে ১০০ মণ মনসুরী তৈরি হয়।”

ব্যবসায়ীরা জানান, স্থানীয়ভাবে তো বেচাকেনা আছে, এরপরও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা পাইকাররা নিজেদের রেস্তোরাঁয় মনসুরী কিনে নিয়ে যান। রাজশাহী, খুলনা রাজধানী ঢাকাতেও যান মনসুরী মিঠাই।

সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন জানান, সৈয়দপুরের ঐতিহ্য মনসুরী মিঠাই টিকিয়ে রেখেছেন হোটেল মালিক ও কারিগররা। দারুণ স্বাদের এই মিষ্টি আত্মীয়স্বজন কিংবা সৈয়দপুরে কেউ বেড়াতে এলে সঙ্গে করে নিয়ে যান। বাঙালি-বিহারী অধ্যুষিত সৈয়দপুরে বিয়ে বাড়িতে কিংবা মিলাদ মাহফিলে মনসুরীর কদর সবচেয়ে বেশি।
 

Link copied!