• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বিয়ের কথা বলে প্রাথমিকের শিক্ষিকাকে ধর্ষণ, ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেপ্তার


জয়পুরহাট প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মে ২, ২০২৩, ০১:২৮ পিএম
বিয়ের কথা বলে প্রাথমিকের শিক্ষিকাকে ধর্ষণ, ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

জয়পুরহাটে বিয়ের কথা বলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে (৩৩) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১ মে) রাতে জয়পুরহাট শহরের একটি মহল্লার ভাড়া বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওই ব্যাংক কর্মকর্তা জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলায় কর্মরত। তার বাড়ি পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায়। ভুক্তভোগী নারীর (৩০) বাড়ি পাঁচবিবি উপজেলায়।

এর আগে ওই ভুক্তভোগী নারী তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। জয়পুরহাট সদর থানায় মামলার এজাহারে ওই শিক্ষিকা বলেন, তিন বছর আগে ওই ব্যাংক কর্মকর্তার সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তার পরিচয় হয়। এরপর তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে তারা বিভিন্ন স্থানে সময় কাটাতেন। প্রায় আট মাস আগে থেকে ওই ব্যাংক কর্মকর্তা তাকে বিয়ের কথা বলে ভাড়া বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করে আসছিলেন। সবশেষ ১৪ মার্চ রাতে ভাড়া বাসায় নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। তবে বিয়ের কথা বললে তালবাহানা শুরু করেন। পরে তিনি খোঁজ নিয়ে দেখেন, ওই ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রী রয়েছেন। ওই কর্মকর্তা তার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। বিয়ের কথা বললে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন।

মঙ্গলবার (২ মে) জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, বিয়ের কথা বলে স্কুলশিক্ষিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় ব্যাংক কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

Link copied!