• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯

রুপালি ইলিশে উত্তাপ, কাঁচা মরিচে ঝাঁজ বেড়েছে


জাহিদ রাকিব
প্রকাশিত: আগস্ট ৫, ২০২২, ০৪:১৬ পিএম
রুপালি ইলিশে উত্তাপ, কাঁচা মরিচে ঝাঁজ বেড়েছে

ইলিশের ভরা মৌসুম চলছে, তবু যেন বেড়েই চলছে দাম। প্রায় এক মাস ধরে রাজধানীর মাছের বাজার অনেকটাই ইলিশের দখলে। সব বাজারেই মিলছে বড় বড় ইলিশ। ফলে ক্রেতারাও অনেকটা ইলিশের দিকে ঝুঁকছেন। এরপরও কমছে না মাছের দাম। বাজারে এক কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ৬০০ থেকে ১ হাজার ৮০০ টাকা পর্যন্ত। ইলিশের উত্তাপের সঙ্গে কাঁচা মরিচের ঝাঁজ যেন বেড়েছে কয়েক গুণ। সপ্তাহের ব্যবধানে মানভেদে কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ২৬০ থেকে ২৯০ টাকা পর্যন্ত।

এদিকে ভরা মৌসুমে বাজারে ইলিশের দাম কম থাকার কথা থাকলেও বিপরীত চিত্র বাজারগুলোতে। ক্ষণে ক্ষণে বাড়ছে ইলিশের দাম। ব্যবসায়ীদের সেই পুরোনো দোহাই সরবরাহ কম। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, চাহিদা বেশি থাকার সুযোগ নিয়ে পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতা এবং রেস্টুরেন্ট মালিকরা অতিরিক্ত দাম হাঁকেন। তাদের দাবি মাছ ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের ইলিশ মাছ চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, হাতিরপুলসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, ইলিশ মাছ পছন্দ করে না, এমন মানুষ পাওয়া যাবে না। তাই দাম বেশি হওয়ার পরও একটি শ্রেণি ইলিশের দিকে ঝুঁকছে। আর বৃষ্টি ও নানা এলাকায় বন্যা হওয়ায় কাঁচা মরিচের দাম বাড়ছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারভেদে ১ কেজির বেশি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ৬০০ থেকে ১ হাজার ৮০০ টাকা কেজি পর্যন্ত। ৮০০ গ্রাম থেকে এক কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ১০০ থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকা কেজি।

মোহাম্মদপুরের বাসিন্দা রাবেয়া খাতুন সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “বাজারে এত ইলিশ তবু দামে আগুন। হাজার টাকার ওপরে কেজি চায়। আমাদের মতো মানুষের কি এই দামে ইলিশ কেনা সম্ভব। বাজারে এসে বুঝলাম ইলিশ বড় লোকের খাবার। গরিবের কপালে এখন আর ইলিশ নেই। এখন ইলিশ কেনা মানেই বিলাসিতা করা।”

মগবাজার এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ হোসেন ইলিশ কিনতে এসেছেন কারওয়ান বাজারে। কিন্তু মাছের দাম শুনে খালি হাতে ফিরে গেছেন। তিনি বলেন, “বাজারে ইলিশ আছে, কিন্তু দাম মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে।”

মাছ ব্যবসায়ী মো. হারুন সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “গেল বছরের চেয়ে এবার নদী এবং সাগরে ইলিশ মাছ কম ধরা পড়ছে। বেশি দাম দিয়ে আমাদেরকে ঘাট থেকে মাছ কিনে আনতে হয়। তাই খুচরা বাজারেও দাম বেশি।”

মাছ ব্যবসায়ী বাবুল সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “সাগর নদীতে প্রতিদিন টনে টনে মাছ ধরা পড়লেও আড়তগুলোতে দাম কমছে না। আড়ত থেকে আমরা কম দামে মাছ নিয়ে আসতে পারলে কম দামে বিক্রি সম্ভব।”  

অপরদিকে দেশের নানা প্রান্তে হঠাৎ ভারি বৃষ্টি ও বন্যায় সপ্তাহের ব্যবধানে রাজধানীর খুচরা বাজারে কাঁচা মরিচের দাম বেড়েছে কেজিতে ১৩০ থেকে ১৬০ টাকা। বর্তমানে খুচরা বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা থেকে ২৫০ টাকা।

কারওয়ান বাজারের সবজি বিক্রেতা জীবন আহমদ সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “পাইকারি বাজারে কাঁচা মরিচের দাম বেশি। দেশের বিভিন্ন জায়গায় বন্যা হওয়ায় অনেক চাষ বন্ধ হয়ে গেছে। তাই হয়তো একটু দাম বাড়ছে। পাইকারি বাজারে দাম না কমলে আমাদের কিছু করার নেই।”