• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

নারীদের ওজনের হার বেড়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: নভেম্বর ১৮, ২০২১, ০৩:৫৯ পিএম
নারীদের ওজনের হার বেড়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নারীদের ওজনের ক্ষেত্রে সরকার সাফল্য অর্জন করেছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। 

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মো. সেলিমের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

জাহিদ মালেক বলেন, “১৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী নারীদের কম ওজনের ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনের পাশাপাশি অতি ওজনের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ৩২ শতাংশ।”

বিডিএইচএসের পরিসংখ্যানের বরাত দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “১৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী নারীদের অপুষ্টিজনিত কম ওজন ২০০৭ সালে ছিল ৩০ শতাংশ, ২০১৭-১৮ সালে এসে সেটা দাঁড়িয়েছে ১২ শতাংশে। অন্যদিকে, অতি ওজন ২০০৭ সালে ছিল ১২ শতাংশ, ২০১৭-১৮ সালে সেটা বেড়ে হয়েছে ৩২ শতাংশ।”

পুষ্টিহীনতা বিষয়ে সার্বজনীন (সব বয়সের) মানুষের নির্দিষ্ট কোনো পরিসংখ্যান নেই বলে জানান জাহিদ মালেক।

মন্ত্রীর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, “খর্বাকৃতির হার টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি, ২০৩০) অনুযায়ী ১২ শতাংশের নিচে নামিয়ে আনার কথা থাকলেও ২০১৭-১৮ সালে তা ৩১ শতাংশ; ২০০৭ সালে যা ছিল ৪৩ শতাংশ। কৃশকায় ৫ শতাংশের নিচে নামিয়ে আনার কথা থাকলেও তা রয়েছে ৮ শতাংশ; ২০০৭ সালে যা ছিল ১৭ শতাংশ।”

ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজমের প্রশ্নের জবাবে জাহিদ মালেক বলেন, “করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশে ২৯ কোটি ৪৪ লাখ ডোজ টিকার সংস্থান হয়েছে। গত ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত দেশে আট কোটি ৪১ লাখ ৩৮ হাজার ৫৪ ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। পাঁচ কোটি ১৩ লাখ ৩২ হাজার ৮৬৪ জনকে প্রথম ডোজ এবং তিন কোটি ২৮ লাখ ৫ হাজার ১৯০ জনকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে।”

Link copied!