• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

সামান্য বৃষ্টিতেই বিদ্যালয় মাঠে জমে হাঁটুপানি


লালমনিরহাট প্রতিনিধি
প্রকাশিত: আগস্ট ২৫, ২০২৩, ০৮:৫৭ এএম
সামান্য বৃষ্টিতেই বিদ্যালয় মাঠে জমে হাঁটুপানি

সামান্য বৃষ্টি হলেই লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের কাকিনা মহিমা রঞ্জন স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় ও কাকিনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জমে পানি। সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। দুর্ভোগে পড়ে শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) সরেজমিন দেখা গেছে, বিদ্যালয়ের মাঠ নিচু হওয়ায় এবং পানি নিষ্কাশনের পথ না থাকায় মাঠটির বেশির ভাগ অংশেই জমে আছে হাঁটুপানি। অল্প কিছু অংশে পানি না থাকলেও তা কর্দমাক্ত। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা থাকলেও শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষ ছেড়ে মাঠে নামতে পারছে না। জলাবদ্ধতায় শ্রেণিকক্ষে যাতায়াতের সময় শিক্ষার্থীরা অনেকেই পা পিছলে পড়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, মাঠটি শুধু স্কুলের ছাত্রছাত্রীদেরই নয়, গ্রামের যুবকদেরও খেলাধুলার মাঠ। মাঠটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করা এবং পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করে পুকুরসহ বাড়িঘর নির্মাণ করায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু জলাবদ্ধতা নিরসনে বাস্তবভিত্তিক কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না।

মহিমা রঞ্জন স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসাদুজ্জামান আশা বলেন, “এই বিদ্যালয় ১ হাজার ৩৭ শিক্ষার্থী রয়েছে। বৃষ্টির পানি বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে নিষ্কাশনের পথ না থাকায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি। এ বিষয়ে আমরা প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষকসহ স্থানীয়দের নিয়ে লিখিতভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করেছিলাম। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয় পরিদর্শনও করে গেছেন। কিন্তু আজও এ সমস্যার সমাধান হয়নি।”

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অনিমেষ পাল বলেন, “এই স্কুলে ৩৪০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। যোগদানের পর থেকে দেখি বর্ষায় মাঠে পানি জমে থাকায় স্কুলের শিক্ষার্থীরা শারীরিক শিক্ষা ও মাঠে খেলাধুলা করতে পারছে না। বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মহোদয়কে লিখিতভাবে এবং অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে।”

কাকিনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাহির তাহু বলেন, “আমি জলাবদ্ধতার বিষয়টি জানি না। দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে ড্রেন নির্মাণ করে জলাবদ্ধতা নিরসনের ব্যবস্থা করা হবে।”

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জহির ইমাম জানান, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকদের সঙ্গে সমন্বয় করে মাঠ থেকে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Link copied!