• ঢাকা
  • শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০, ২০ শা’বান ১৪৪৫

বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী পাইপলাইন ফুটো করে তেল চুরি, গ্রেপ্তার ৪


দিনাজপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৫, ২০২৩, ০৩:১১ পিএম
বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী পাইপলাইন ফুটো করে তেল চুরি, গ্রেপ্তার ৪

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ভারত থেকে আসা বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী পাইপলাইনের পাইপ ফুটো করে তেল চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) রাতে পার্বতীপুর রিসিপ টার্মিনাল কর্মকর্তা প্রবীর হীরার করা এক মামলায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তাররা হলেন দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার উত্তর ভবানীপুর ডাঙ্গারহাট গ্রামের মো. আলী উদ্দিনের ছেলে মো. জাহাঙ্গীর আলম (২৭), পার্বতীপুর উপজেলার সোনা পুকুর গ্রামের মো. মাজুম আলীর ছেলে মো. মানিক শাহ্ (৪৫), নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার সাশকান্দর গ্রামের মৃত তাবির উদ্দিনের ছেলে মো. নজমুল হক (৬৫) এবং একই গ্রামের মো. ছলেমান বসু মিয়ার ছেলে মো. আমিনুল ইসলাম (৪৮)।

পার্বতীপুর রিসিপ টার্মিনাল কর্মকর্তা (আরটি) প্রবীর হীরা বলেন, শুক্রবার ভোর ৪টা ৫৭ মিনিটে ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইনের রিসিপ টার্মিনাল পার্বতীপুর রাউটারের মাধ্যমে জানতে পারি পাইপ লাইনের কোথাও ফুটো হয়েছে। তখন লাইনম্যান জাহাঙ্গীরকে জানানো হয়। তিনি এলাকা ঘুরে চিরিরবন্দরের ৩ নম্বর ফতেজংপুর ইউনিয়নের চকইসব এলাকায় লাইনে তেলের গন্ধ পান। পরে ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইনের রিসিপ টার্মিনাল পার্বতীপুরের আরটি প্রতিনিধি, থানা প্রশাসন ও ফায়ার সার্ভিস প্রতিনিধি ওই স্থানের মাটি খুড়ে সেখানে ১০ ইঞ্চি পাইপলাইনের মধ্যে ক্লিপ ও চিকন পাইপ লাগিয়ে তেল চুরি করার দৃশ্য দেখতে পায়।

পরে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ, চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একেএম শরীফুল হক, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুলান্ট চাকমা, চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রশিদ ও ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ বলেন, খবর পাওয়ার পর পরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। ওই পাইপ লাইনের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।  

চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রশিদ বলেন, পাইপ লাইন লিকেজ করে তেল চুরির ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলায় চারজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Link copied!