• ঢাকা
  • শনিবার, ১৮ মে, ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় শ্রেণিকক্ষে ঢুকে শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম


নোয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মে ৯, ২০২৩, ০৭:১৮ পিএম
ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় শ্রেণিকক্ষে ঢুকে শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় শ্রেণিকক্ষে ঢুকে এক কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে জখম করেছে বখাটেরা। 

মঙ্গলবার (৯ মে) দুপুর পৌনে ২টার দিকে উপজেলার সোনাইমুড়ী কলেজের শ্রেণিকক্ষে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ওই শিক্ষার্থীর নাম নাইমুল হোসাইন রিফাত (১৮)। সে উপজেলার সোনাইমুড়ী কলেজের একাদশ শ্রেণির বাণিজ্য বিভাগের ছাত্র এবং সোনাইমুড়ী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়ার ছেলে।  

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুদিন আগে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্রীকে উত্যক্ত করে বখাটেরা। তখন ওই ঘটনায় প্রতিবাদ করে রিফাত। এ ঘটনার জের ধরে দুপুরে ৮-১০ জন বখাটে সোনাইমুড়ী কলেজের শ্রেণিকক্ষে ঢুকে তাকে খুর দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

নোয়াখালী জেলা পরিষদের সদস্য মাহফুজুর রহমান বলেন, রিফাতের ওপর হামলাকারীরা সবাই বখাটে ও বহিরাগত। রিফাত এক ছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। পরে কলেজের শিক্ষার্থীরা রাসেল নামের এক হামলাকারীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। রিফাত বর্তমানে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

সোনাইমুড়ী কলেজের অধ্যক্ষ কে এম শফিকুর রহমান বলেন, “বহিরাগত বখাটেরা কলেজের শ্রেণিকক্ষে ঢুকে রিফাতকে কুপিয়ে জখম করেছে। আমরা তখন যোহরের নামাজে ছিলাম। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক এসে ঘটনার মূল হোতা রাসেলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করি।”  

সোনাইমুড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাজী মুহাম্মদ সুলতান আহসান উদ্দিন বলেন, “খবর পেয়ে পুলিশ আহত শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। তাই কাউকে আটক করা হয়নি।”    

Link copied!