• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১২ মুহররম ১৪৪৫

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনা: দুই দিন পর চালক গ্রেপ্তার


গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মে ১৬, ২০২২, ১০:০৭ পিএম
গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনা: দুই দিন পর চালক গ্রেপ্তার

গোপালগঞ্জে বাস, প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেলের ত্রিমুখী সংঘর্ষের ঘটনার দুই দিন পর হাসপাতাল থেকে বাসচালককে গ্রেপ্তার করেছে হাইওয়ে পুলিশ।

সোমবার (১৬ মে) বিকেলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চালক শংকর দাসকে (৪৫) গ্রেপ্তার করে ভাটিয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশ।

এর আগে, রোববার (১৫ মে) রাত ১০টার দিকে ভাটিয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী ট্রাফিক উপপরিদর্শক গৌতম কুমার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের নাম উল্লেখ করে কাশিয়ানী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় বাসচালককে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

ভাটিয়াপাড়া হাইওয়ে থানা-পুলিশের উপপরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম সংবাদ প্রকাশকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সিরাজুল ইসলাম জানান, তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ভাটিয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির একটি দল খুলনা মেডিকেল কলেজ থেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শংকর দাসকে আটক করে। গত শনিবার কাশিয়ানী উপজেলার মিল্টন বাজার এলাকার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে বাস-প্রাইভেট কার-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে শংকর দাস পা ভেঙে যায়। তাকে প্রথমে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সিরাজুল ইসলাম আরও জানান, শংকর দাস এখনো পুলিশ হেফাজতে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি সুস্থ হলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে মিল্টন বাজার এলাকায় বাস-প্রাইভেট কার-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে  ৯ জন নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হন অর্ধশতাধিক।

স্বদেশ বিভাগের আরো খবর

Link copied!