• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১,

বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন আফগান কোচ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১, ২০২৩, ০৯:৪৭ পিএম
বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন আফগান কোচ
ছবি: সংগৃহীত

এশিয়া কাপে শুরুর ম্যাচেই ধাক্কা খেয়েছে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে টাইগারদের সামনে সুপার ফোরে খেলার জন্য বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে আফগানিস্তান। ৩ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ সাকিব আল হাসানদের। তাদের সামনে এই ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই। তবে আফগানদের বিপক্ষে শুধু জিতলেই হবে না, তাকিয়ে থাকতে হবে শ্রীলঙ্কা-আফগানিস্তান ম্যাচের দিকেও।

এমন ডু অর ডাই ম্যাচকে সামনে রেখে শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) রাতে পাকিস্তানের লাহোরে পৌঁছেছে বাংলাদেশ। টাইগারদের সঙ্গে ম্যাচে অবশ্য নিজেদেরকেই এগিয়ে রাখছেন আফগানিস্তান কোচ জনাথন ট্রট।শুক্রবার সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল, বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচে কারা ফেভারিট? এমন প্রশ্নের জবাবে ট্রট বলেন, “অবশ্যই আফগানিস্তান। আশা করি আমরা এশিয়া কাপ জিতবো।”

আফগানিস্তান গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামবে বাংলাদেশের বিপক্ষে। তাই তাদের সামনে কিছুটা হলেও চাপ কম থাকবে। বাংলাদেশের সঙ্গে হারলেও সুযোগ থাকবে তাদের। কিন্তু সাকিব আল হাসানদের জয় লাগবেই। টাইগাররা জয়ের জন্যই মাঠে নামবেন রশিদ, নবীদের বিপক্ষে সেটা ভালো করেই জানেন আফগান কোচ। ট্রট বলেন, “আমি গতকালকের ম্যাচ দেখেছি। দুই দলেই কিছু ভালো ব্যাপার দেখেছি। আমরা জানি এটা কঠিন হবে। আমাদের দুইটা ম্যাচই কঠিন হবে। তবে প্রথমে বাংলাদেশের ম্যাচটাতেই নজর দিচ্ছি, আমরা জানি তারা অবশ্যই জয়ের জন্য মরিয়া থাকবে।”

আফগানিস্তান কোচ আরও বলেন, “তাদের জয়ের তাড়না এবং আকাঙ্ক্ষার সঙ্গে আমাদের মিল রাখাটা গুরুত্বপূর্ণ। আমরা যদি এই ধরনের মানসিকতা নিয়ে না আসি, তাদের সঙ্গে যদি না মেলে কিংবা তাদের চেয়ে ভালো মানসিকতা এবং ভালো স্কিল নিয়ে মাঠে না নামি; তাহলে আমরা চাপে পড়ে যাব। সবার জন্য আজকে এটাই বার্তা এবং কালকের জন্যও একই। ম্যাচের দিনও এমন বার্তাই থাকবে।”

এবারের এশিয়া কাপে ছয় দল অংশগ্রহণ করেছে। বিশ্বকাপের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সব থেকে বড় টৃর্নামেন্ট এটা। এশিয়ান শ্রেষ্ঠেত্বর লড়াইয়ের মঞ্চকে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে নিচ্ছেন আফগান কোচ। ট্রট বলেন, “এশিয়া কাপে থাকতে পারাটা দারুণ ব্যাপার। এই টুর্নামেন্টের অনেক ইতিহাস আছে। অনেক দারুণ খেলোয়াড়, অসাধারণ ক্রিকেট ঐতিহ্যের দেশ আছে এখানে। আফগানিস্তান ক্রিকেটের জন্য সত্যিই পালকের মতো এটা। যদি আমরা সত্যি ভালো করতে পারি তাহলে বিশ্বকাপের জন্য ভালো প্রস্তুতি হবে।”

Link copied!