• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ১২ শাওয়াল ১৪৪৫

বাজবল আমার কাছে পুরনো স্টাইল: ইউনিভার্স বস


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪, ০৩:৪৮ পিএম
বাজবল আমার কাছে পুরনো স্টাইল: ইউনিভার্স বস
‘ইউনিভার্স বস’ ক্রিস গেইল। ছবি: সংগৃহিত

ইংল্যান্ড দলের হাতে টেস্ট ক্রিকেট এখন ভিন্নমাত্রা পেয়েছে। বেন স্টোকস অধিনায়ক ও ব্রেন্ডন ম্যাককালাম কোচ হওয়ার পর তাদের খেলার ধরনটাই বদলে গেছে। ‘বাজবল’ তথা আগ্রাসী ক্রিকেট খেলে ম্যাচের প্রথম বল থেকেই প্রতিপক্ষ বোলারদের ওপর চড়াও হচ্ছে তারা। ম্যাককালামের ডাকনামের সঙ্গে মিল রেখে এর নাম দেওয়া হয়েছে বাজবল।

গত দুই বছরে বাজবল সফলতা যেমন দেখেছে, তেমনি দেখেছে ব্যর্থতাও। চলমান ভারত সফরে জয় দিয়ে শুরু করলেও হেরেছে পরের দুই টেস্টে। বিশেষ করে যশস্বী জয়সওয়ালের ব্যাটিংয়ের কাছে পাত্তাই পায়নি তারা। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে পরপর দুই টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি তুলে নেন ভারতীয় এই ওপেনার। তা দেখে ইংলিশ ওপেনার বেন ডাকেট কৃতিত্ব দিলেন বাজবলকেই।

মারকুটে ওপেনার হিসেবে সুনাম কুড়ানো ক্রিস গেইলের মতে, আগ্রাসী ক্রিকেটের প্রচলন আরও আগে থেকেই ছিল। তাই বাজবল তার কাছে নতুন কিছু নয়, পুরনো স্টাইল।

ডাকেটের মন্তব্যকে একহাত নিয়ে ‘ইউনিভার্স বস’ খ্যাত গেইল এএফপিকে বলেন, ‘ক্রিস গেইল আন্তর্জাতিক মঞ্চে পা রাখার আগে থেকেই বছরের পর বছর ধরে আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলা হচ্ছে। আমাদের (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) জন্য সেই পথ তৈরি করে দিয়েছেন ভিভ রিচার্ডস, ব্রায়ান লারার মতো ক্রিকেটাররা। তারা সব ফরম্যাটেই আক্রমণাত্মক খেলোয়াড়। পরিসংখ্যান চেক করলে দেখবেন, তারা কীভাবে তাদের ইনিংস সাজিয়েছেন।’

গেইল বলেন, ‘আমার মনে হয় না, সে (জয়সওয়াল) ইংল্যান্ডের কাছ থেকে শিখেছে। খেলার এই ধরনটি নিজের কোচ ও মেন্টরের পরামর্শে গড়ে তুলেছে। সে স্রেফ অসাধারণ একজন খেলোয়াড়। মনে হচ্ছিল যেন ২০ বছর ধরে খেলছে, অবিশ্বাস্য। আশা করি, সে যেন এটা ধরে রাখতে পারে।’
 

Link copied!