• ঢাকা
  • বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

মুশফিকের সেঞ্চুরির পরও প্রাইম ব্যাংককে হারালো আবাহনী


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৫, ২০২৪, ০৭:০৫ পিএম
মুশফিকের সেঞ্চুরির পরও প্রাইম ব্যাংককে হারালো আবাহনী
অপরাজিত সেঞ্চুরির পথে বাউন্ডারী হাঁকাচ্ছেন মুশফিক। ছবি: সংগৃহীত

মুশফিকুর রহিম আবারও প্রমাণ করলেন কেন তাকে মিস্টার ডিপেন্ডেবল বলা হয়। আঙুলের ইনজুরিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে দলে ছিলেন না। অবশেষে দীর্ঘ বিরতির পর সোমবার প্রাইম ব্যাংকের হয়ে মাঠে নামলেন এবং আবাহনীর বিপক্ষে একাই লড়লেন মুশফিক।

জয়ের জন্য প্রাইম ব্যাংকের লক্ষ্য ছিল ৩৪২ রান। মিরপুরে এ বিশাল লক্ষ্যকে ছুঁতে গিয়ে যেমন হাত খুলে খেলার দরকার ছিল তা পারেননি প্রাইম ব্যাংকের ব্যাটাররা। শেষ পর্যন্ত ২৯৩ রান করতে সক্ষম হয় মুশফিকের সেঞ্চুরির সুবাদে।   

আবাহনী করে ৪ উইকেটে ৩৪১ রান। পায় ৫৮ রানের জয়, যা এবারের লিগে আকাশী-হলুদদের টানা দশম জয়। অন্যদিকে প্রাইম ব্যাংকের দশ খেলায় চতুর্থ পরাজয়।

তামিম ইকবাল ১, জাকির হাসান ৮, শাহাদাত হোসেন দিপু ১২, মোহাম্মদ মিঠুন ৭ এবং অলক কাপালি ১৮- এই ছিল প্রাইম ব্যাংকের প্রথম সারির ব্যাটারদের রান। এর মাঝে পারভেজ ইমনের ৭০ বলে ৫৬ রানের ধীরগতির অর্ধশতকও ছিল।

অন্য প্রান্তে কেউ সে অর্থে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে না পারলেও মুশফিকুর রহিম ঠিক একাই লড়াই করলেন। প্রথম ৫০ করলেন ৪৭ বলে ৮ বাউন্ডারি মেরে। শেষ পর্যন্ত মুশফিকের ১০৫ বলে ১৪টি চারে ১১১ রানের অপরাজিত ইনিংস প্রাইম ব্যাংকে নিয়ে গেলো ২৮৩ পর্যন্ত।

আবাহনীর হয়ে ২পেসার তাসকিন ও তানজিম সাকিব ৩টি করে এবং অফস্পিনার মোসাদ্দেক হোসেন ২টি উইকেট পান।

এর আগে আবাহনীর ইনিংসে দারুণ এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত । ৮৫ বলে ১৩টি চার ৪টি ছক্কায় ১১৮ রান করেন তিনি। আরেক বাঁহাতি নাইম শেখ ১০৪ বলে ১০৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন ১০টি বাউন্ডারির সাহায্যে। ওপেনার এনামুল হক বিজয় ৪৫ রানে ফিরে যান। ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে তাওহিদ হৃদয় ৩৫ বলে ৬৫ রান করেন।

Link copied!