• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ভালো শুরু করেও সম্বল ১২২ রান


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ৯, ২০২১, ০৭:৩৯ পিএম
ভালো শুরু করেও  সম্বল ১২২ রান

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১২২ রান করে বাংলাদেশ। টাইগারদের হয়ে সর্বোচ্চ রান ২৩ রান করেন মোহাম্মদ নাঈম। 

স্বাগতিক বাংলাদেশ ও সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করার স্বিদ্ধান্ত নেয় টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সিরিজে ৩-১ এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।

চার ম্যাচ পর একাদশে পরিবর্তন আনে বাংলাদেশ। শামীম হোসেনের জায়গায় মোসাদ্দেক হোসেন ও শরীফুল ইসলামের জায়গায় নামেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। অপরদিকে অজিরাও দুইটি পরিবর্তন নিয়ে মাঠে। দলে এসেছেন অ্যাডাম জাম্পা ও নাথান এলিস।

ধুঁকতে থাকা সৌম্য সরকার একাদশে থাকলেও, অপেন করতে নামেন মোহাম্মদ নাঈম ও মেহেদী হাসান। অজিদের হয়ে বোলিংয়ে উদ্ধোধন করতে নামেন অ্যাশটন টার্নার। প্রথম ওভারে একটি চারের মাধ্যমে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৮ রান। 

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে অ্যাশটন অ্যাগারের বলে স্লগ সুইপে কাউ কর্নার দিয়ে দুর্দান্ত একটি ছয় মেরেছেন মোহাম্মদ নাঈম। দ্বিতীয় ওভারে হয়েছে ১১ রান।

অজিদের হয়ে তৃতীয় ওভারে বল করতে আসেন অ্যাডাম জাম্পা। এ ওভারে উঠেছে ১৪ রান। ৩ ওভার শেষে কোন উইকেট না হারিয়ে বাংলাদেশের স্কোর ৩৩ যা এই সিরিজে সর্বোচ্চ ওপেনিং রানের জুটি। 

ইনিংসের চতুর্থ ওভারে অভিষেকেই হ্যাট্রিক করা নাথান এলিসের এসেছে মাত্র দুই রান। এর পরের ওভারে টার্নারের বলে মিড অনে অ্যাগারের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়েছেন মেহেদী। ১২ বলে ১৩ রান করেছেন তিনি। বাংলাদেশের প্রথম উইকেটের পতন হয় ৪২ রানে। পাওয়ার প্লের ৬ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৪৬ রান। 

ড্যান ক্রিস্টিয়ানের বলে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে অ্যাগারের হাতে পড়েন নাঈম। একটি চার ও ছয়ে সমানসংখ্যক বলে ২৩ রান করেন তিনি। ৫৭ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

নাঈম আউটের পরের ওভারেই ফিরেছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। অ্যাডাম জাম্পার ফুললেংথের বল ফ্লিক করতে গিয়ে লাইন মিস করে আউট হয়েছেন সাকিব। ২০ বলে ১১ রান করেছেন তিনি।

অধিনায়ক এসে রানের গতি বাড়াতে থাকেন। জাম্পাকে ছয় মারার মাধ্যমে ৫১ বলের বাউন্ডারির অপেক্ষা ঘোচান। কিন্তু বেশীক্ষণ টিকতে পারেননি তিনি। অ্যাগারের বলে তার হাতেই ক্যাচ দিয়ে ১৪ বলে ১৯ রান করে আউট হন মাহমুদউল্লাহ। 

সিরিজের সবগুলো ম্যাচেই ধুঁকেছেন সৌম্য সরকার। ক্রিস্টিয়ানের বলে লং অফে টার্নারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ১৮ বলে ১৬ রান করে ফিরেন তিনি। এই সিরিজে এটাই তার সর্বোচ্চ রান। 

ক্রিজে এসেই প্রথম বলেই কাভারের উপর দিয়ে দুর্দান্ত ছয় মারেন তরুণ ব্যাটসম্যান আফিফ হোসাইন। জাম্পার করা ১৭ তম ওভারে এসেছে মাত্র ১ রান। অ্যালিসের বলে ব্যাটের কানায় লেগে বোল্ড হয়েছেন নুরুল হাসান সোহান। ১৩ বলে ৮ রান করেন তিনি। 

আফিফের ব্যাট থেকে এসেছে গুরুত্বপূর্ণ ১০ রান। কোন রান না করেই রান আউট হয়েছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।  

অজিদের হয়ে অ্যাশটন টার্নার, অ্যাশটন অ্যাগার ও অ্যাডাম জাম্পা নিয়েছেন একটি করে উইকেট। এছাড়া দুই উইকেট পেয়েছেন ড্যান ক্রিস্টিয়ান ও নাথান অ্যালিস।  

Link copied!