আমাদের কৈশোরে-যৌবনে সব সুন্দরের সঙ্গে হুমায়ূন আহমেদের সংশ্রব আছে


জ. ই. মামুন
প্রকাশিত: নভেম্বর ১৩, ২০২২, ০১:০৬ পিএম
আমাদের কৈশোরে-যৌবনে সব সুন্দরের সঙ্গে হুমায়ূন আহমেদের সংশ্রব আছে

হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে গান গাইবার ফাঁকে গল্পটা  বলছিলেন শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা : “আশির দশকের মাঝামাঝি বন্যা আপা গেছেন অন্য শিল্পীদের সঙ্গে নোয়াখালীর কোনো গ্রামের এক গানের অনুষ্ঠানে। সেখানে রবীন্দ্রসংগীত কেউ শুনবেন, এমন ধারণা তার ছিল না। তিনি কোনো রকমে একটা গান গেয়েই মঞ্চ থেকে নেমে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। সেই অনুষ্ঠান মঞ্চটি ছিল যাত্রার মঞ্চের মতো উন্মুক্ত। অনেক দর্শকের সাথে সেখানে গরুর গাড়ির ওপরেও বসাছিলেন কয়েকজন দর্শক। প্রথম গান শেষ হওয়ার পরে সেই গরুর গাড়ির দর্শকরাই তাকে অনুরোধ করেন ‘দূরে কোথায়, দূরে দূরে’ গানটি গাইবার জন্যে। তিনি যারপরনাই বিস্মিত হয়ে গানটি গাইলেন।

গল্পটা তিনি বললেন এই জন্যে যে, তার কিছুদিন আগে হুমায়ূন আহমেদের ‘এইসব দিনরাত্রি’ নাটকে ‘দূরে কোথাও’ গানটি তাকে দিয়ে গাইয়েছেন হুমায়ূন আহমেদ। সেই নাটকের হাত ধরে বাংলার গ্রামগঞ্জের ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে রবীন্দ্রনাথের গান। এমনি আরো অনেক নাটকে, অনেক চলচ্চিত্রে রবীন্দ্রনাথের গান ব্যবহার করে গানগুলোকে মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন হুমায়ূন আহমেদ। এ কারণেও তিনি স্মরণে ও শ্রদ্ধায় থাকবেন, বলছিলেন বন্যা আপা।

আজ নন্দিত লেখক হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন। বেঁচে থাকলে আজ ৭৫ হতেন তিনি। জন্মদিনে তাঁকে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাই। আমাদের কৈশোরে-যৌবনে সব সুন্দরের সঙ্গে তাঁর কোনো না কোনো সংশ্রব আছে—গল্পের ভেতর দিয়ে, নাটকের ভেতর দিয়ে, সিনেমার ভেতর দিয়ে কিংবা গানের ভেতর দিয়ে।

শুভ জন্মদিন সুন্দরের ফেরিওয়ালা।

Link copied!