• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯
শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতাল

দেশেই বিশ্বমানের চিকিৎসার প্রতিশ্রুতি


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ২০, ২০২২, ০২:৫২ পিএম
দেশেই বিশ্বমানের চিকিৎসার প্রতিশ্রুতি

উন্নত জাপানিজ প্রযুক্তি এবং অভিজ্ঞ ও বিশেষায়িত চিকিৎসকদের দিয়ে দেশেই বিশ্বমানের চিকিৎসাসেবা দেওয়ার অঙ্গীকার নিয়ে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করছে শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতাল।

 

১৮ জুন (শনিবার) প্রধান অতিথি হিসেবে হাসপাতালটি আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক  ভিডিও বার্তা পাঠান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন কার্যনির্বাহী সদস্য (বিডা) মোহসিনা ইয়াসমিন, জাইকার প্রধান প্রতিনিধি হায়াকাওয়া য়ুহো, জাইকার সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট নাকাযাওয়া কেইচিরও,  অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান(সভাপতি, স্বাচিপ), জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালটির চেয়ারম্যান কোবায়াশি হিরোইউকি, ডেপুটি চেয়ারম্যান ও সিএফও কোজিমা হিদেও এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন।


জাপানের গ্রিন হসপিটাল সাপ্লাই, জাইকা এবং বাংলাদেশের আইচি মেডিকেল গ্রুপের যৌথ উদ্যোগে ২০১৬ সালে বাংলাদেশে শিপ আইচি মেডিকেল সার্ভিস লিমিটেডের যাত্রা শুরু হয়, যার আওতাভুক্ত শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালটি ঢাকার তুরাগে অবস্থিত ৬৫০ সজ্জাবিশিষ্ট একটি আন্তর্জাতিক মানের হাসপাতাল।


বাংলাদেশে এই প্রথম জাপানি ব্যবস্থাপনায় শিপ ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতাল শুরু থেকেই স্বাস্থ্যসেবায় দক্ষতা এবং মান বজায় রেখে কাজ করে আসছে। হাসপাতালটি সব বিভাগের দক্ষ ও অভিজ্ঞ চিকিৎসক এবং নার্স দ্বারা সব শ্রেণির মানুষদের সাফল্যের সঙ্গে সুচিকিৎসা প্রদান করে আসছে।

 

মাল্টি-স্পেশালাইজড বেসরকারি এই হাসপাতালে আইসিইউ, সিসিইউ, এইচডিইউ এবং এনআইসিইউ সুবিধাসহ ১০৭টি শয্যা রয়েছে। আরও রয়েছে অত্যাধুনিক উন্নত চিকিৎসা সরঞ্জাম, দক্ষ চিকিৎসক এবং দক্ষ চিকিৎসাকর্মী।


২০ হাজার বর্গমিটারের এই হাসপাতালে রয়েছে আলাদা আলাদা ইনপেশেন্ট বিল্ডিং, অফিস এবং সার্ভিস সাপোর্ট বিল্ডিংসহ ৫১টি বহির্বিভাগ কক্ষ। জাপানি স্টাইলের ব্যাক আইল সিস্টেমসহ ৩টি অত্যাধুনিক মডুলার অপারেশন থিয়েটারসহ সর্বমোট ১২টি অত্যাধুনিক অপারেশন থিয়েটার, কার্ডিয়াক সেন্টারসহ সর্বাধুনিক বিশেষায়িত চিকিৎসাসেবা এবং সর্বাধিক নিরাপত্তাসংবলিত গাড়ির পার্কিং এর সুব্যবস্থা রয়েছে। হাসপাতালটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে দেশের চিকিৎসাসেবায় এক নতুন অধ্যায়ের সুচনা হবে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালটির চেয়ারম্যান কোবায়াশি হিরোইউকি। তিনি আরও বলেন, হাসপাতালটি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এবং উন্নত প্রযুক্তির ব্যবস্থাপনায় শুধু আশুলিয়া বা ঢাকা নয়, সারা দেশের রোগীরা উন্নত স্বাস্থ্যসেবা পাবেন। এবং বাংলাদেশ-জাপান যৌথ উদ্যোগে হাসপাতালটি নির্মিত হওয়ায় বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানান।