• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪৫

হামলার আশঙ্কায় ইরানে পারমাণবিক কেন্দ্র বন্ধ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৭, ২০২৪, ১০:৫১ এএম
হামলার আশঙ্কায় ইরানে পারমাণবিক কেন্দ্র বন্ধ
পারমাণবিক কেন্দ্র। ছবি : সংগৃহীত

ইসরায়েলে হামলা চালানোর পর নিরাপত্তা ইস্যুতে ইরান সাময়িকভাবে নিজেদের পারমাণবিক কেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের পরমাণু পর্যবেক্ষণ সংস্থার প্রধান রাফায়েল গ্রসি। সোমবার (১৫ এপ্রিল) জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের বৈঠকের সাইডলাইনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এমনটি জানান। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

অতীতেও ইরানের পারমাণবিক কেন্দ্রগুলোতে নানা অভিযান চালানোর অভিযোগ রয়েছে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে। এবারও কি তেহরানের হামলার প্রতিশোধ নিতে সেগুলোকেই টার্গেট করবে তেল আবিব?

এই প্রশ্নের উত্তরে সাংবাদিকদের আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান রাফায়েল গ্রসি বলেন, “আমরা এই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছি না। পুরো পরিস্থিতি নিয়ে আমরা উদ্বেগে রয়েছি। ইরানে আমাদের পরিদর্শকরা রয়েছেন। সে দেশের সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রতিদিন সব পারমাণবিক কেন্দ্রগুলো পরিদর্শন করা হচ্ছে। নিরাপত্তার স্বার্থে সাময়িকভাবে সেগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে।”

২০১০ সালে ইরানের দুই পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছিল ইসরায়েলের বিরদ্ধে। ওই বছরই ভাইরাস ব্যবহার করে অত্যাধুনিক একটি সাইবার আক্রমণ হয়েছিল ইরানে। ফলে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণে ব্যাপক বিঘ্ন ঘটেছিল। তখনো ইসরায়েল আর যুক্তরাষ্ট্রকেই দায়ী করেছিল তেহরান। ফলে এইবারও বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, ইরানের পরমাণু কেন্দ্রগুলোকে ‘টার্গেট’ করতে পারে তেল আবিব।

১ এপ্রিল সিরিয়ায় ইরানের দূতাবাসে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় হয়। অন্তত ১৩ জন প্রাণ হারান। মৃতদের মধ্যে ছিলেন দুজন ইরানি সেনা কর্মকর্তাও। এই হামলার পেছনে ইসরায়েলের হাত ছিল বলে অভিযোগ তেহরানের। তারপর থেকেই ইসরায়েলকে লাগাতার হুমকি দিয়ে যাচ্ছিল ইরান। অবশেষে সব আশঙ্কা সত্যি করে শনিবার দিবাগত রাতে দেশটিতে আঘাত হানে তেহরান। 

Link copied!