• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ৬ শাওয়াল ১৪৪৫

জুরি হওয়ার আমন্ত্রণ পাওয়ার পর এখনো ভিসা পাইনি: বাঁধন


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪, ০৪:১২ পিএম
জুরি হওয়ার আমন্ত্রণ পাওয়ার পর এখনো ভিসা পাইনি: বাঁধন

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন ভারতে অনুষ্ঠিতব্য ১৫তম বেঙ্গালুরু আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের বিচারক হওয়ার আমন্ত্রণ পেলেও, উৎসবে অংশগ্রহণ নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিলতা। ২৭ ফেব্রুয়ারিতে উৎসব শুরু হবে, কিন্তু আজ সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে গিয়ে বাঁধন দেখেন ভারত ভ্রমণের অনুমতি (ভিসা) পাননি তিনি। সংবাদ প্রকাশের কাছে হতাশা ব্যক্ত করে আজমেরী হক বাঁধন বলেন, “আমি বাকরুদ্ধ। আমি নিজের জন্য নিজেই দুঃখিত বোধ করছি। আগামীকাল (২৭ ফেব্রুয়ারি) আমার এয়ার টিকিট কাটা ছিল। কিন্তু এখনো ভিসা পাইনি।”

বাঁধন জানান, পাসপোর্ট সংগ্রহের তারিখ ছিল ২৪ ফেব্রুয়ারি, কিন্তু শুটিংয়ের কারণে পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে যান ২৬ ফেব্রুয়ারি। টুরিস্ট ভিসায় আবেদন করেছিলেন বাঁধন। তিনি বলেন, “উৎসবের আমন্ত্রণপত্রে স্পষ্ট উল্লেখ আছে আমি টুরিস্ট ভিসায় এপ্লাই করে ফেস্টিভালে অংশ নিতে পারব। আমি সেটাই করেছি। ভারতে আমি তো কোনো ছবির শুটিংয়ে যাচ্ছি না। টুরিস্ট ভিসা এপ্লাই করেছি কাজের জন্য নয়। আমি এপ্লাই করার ক্ষেত্রে ভিসা ক্যাটাগরিতে কোনো ভুল করিনি। তারপরও কেন যে ভিসা পেলাম না!”

বলিউডে বিশাল ভরদ্বাজের “খুফিয়া” ছবির কাজ করে আসার পর, গত দেড় বছরে এনিয়ে দু’বার আবেদন করেও ভারতে যাওয়ার ভিসা পাননি বলে জানান বাঁধন। দুবারই তিনি টুরিস্ট ভিসায় আবেদন করেছিলেন। প্রথমবার “খুফিয়া” ছবির প্রচারের জন্য যেতে চেয়েছিলেন, সেবারও তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আর এবার চলচ্চিত্র উৎসবে জুরির দায়িত্ব পালন করতে যেতে চেয়েছিলেন, কিন্তু এবারও তিনি ভিসা পাননি।

তবে এখনো আশা ছাড়েননি বাঁধন। বেঙ্গালুরু আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের মূল জুরিবোর্ডের সদস্য হিসেবে যোগ দেওয়া যে কারো জন্য সম্মানের জানিয়ে বাঁধন বলেন, “এই ইন্টারন্যাশনাল ফেস্টিভালটি আসলে কর্ণাটকের সরকারি আয়োজনেই হয়। ভিসা যে পেলাম না, আমার সংশয় ওদের কোনো ভুল হয়েছে কি না। দেখি শেষ পর্যন্ত ভিসা পাই কি না।”

এই চলচ্চিত্র উৎসবের বিচারক বাঁধনের সঙ্গে জুরি হিসেবে আরও থাকার কথা ছিল রাশিয়ার নিনা কোচলেইভা, স্পেনের রোজানা আলোনসো, যুক্তরাজ্যের ক্যারি শনেই ও ভারতের সীতারামের। বাঁধনকে উৎসবের এশিয়ান সিনেমা কম্পিটিশন সেকশনে বিচারক হওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিল উৎসব কর্তৃপক্ষ। বেঙ্গালুরু আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবটি আয়োজন করে ভারতের সরকারি প্রতিষ্ঠান কর্ণাটক চলচ্চিত্র একাডেমি।

Link copied!