• ঢাকা
  • সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মৃত ভেবে শ্মশানে ফেলে রাখা হয়েছিল দেবকে


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: আগস্ট ২২, ২০২১, ১২:০৮ পিএম
মৃত ভেবে শ্মশানে ফেলে রাখা হয়েছিল দেবকে

বাংলা চলচ্চিত্রের সুপারস্টার দেব। দুই বাংলার মানুষের কাছে তার জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। দেবের সিনেমা মুক্তি পাওয়া মানেই ভিন্ন এক উৎসব। অনেকে আছেন যে তার সিনেমা ‘ফার্স্ট ডে ফার্স্ট শো’ না দেখলে ঘুম হয় না।

কিন্তু আপনি শুনলে অবাক হবেন, ছোটবেলায় এই দেবকে মৃত ভেবে ফেলে রাখা হয়েছিল শ্মশানে। শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের সঞ্চালনায় একটি টেলিভিশন শোতে এমনটাই জানিয়েছেন দেব।

তিনি জানান, “খুব ছোটবেলায় গাজনের মেলা দেখতে মুম্বাই থেকে মামার বাড়ি গিয়েছিলেন তিনি। সবার সঙ্গে হইচই করতে করতে গ্রামের মেলায় যান। সেখানে কেউ তাকে এমন কিছু খাইয়ে দিয়েছিল, যা খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অজ্ঞান হয়ে পড়েন দেব। টানা এক দিন তার জ্ঞান ফেরেনি। ওই গ্রামবাসীরা ভেবেছিল, দেব মারা গেছে। নির্দিষ্ট সময় পরে তারা সবাই দেবকে নিয়ে শ্মশানে ফেলে রেখে আসে।

তিনি আরও জানান, নিখোঁজ হওয়ার পর তার নানি-মামারা তাকে সব জায়গায় খুঁজতে শুরু করেন। এদিকে শ্মশানে ফেলে রেখে যাওয়ার এক দিন পর জ্ঞান ফেরে তার। অবশেষে দেবকে খুঁজে পান তার আত্মীয়রা। সে সময় তার নানি মানত করেছিলেন, নাতিকে খুঁজে পেলে বড় হওয়ার পর দেবকে দিয়ে তিনি গাজনের সন্ন্যাস পালন করাবেন। তার সেই মানত রাখতে মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার পরে আবারও গ্রামে গিয়েছিলেন দেব। এক সপ্তাহের জন্য তিনি ‘ভক্তা’ বা গাজনের সন্ন্যাসী হয়েছিলেন। অন্য সন্ন্যাসীদের মতো তখন তিনিও মন্দিরে থাকতেন। পালন করতে সন্ন্যাসীদের সব আচার।

সেদিন সেই টক শোতে দেবের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী রুক্মিণী মৈত্র। প্রেমিকের জীবনের এমন ঘটনা শুনে শিউরে ওঠেন তিনি। সঞ্চালক শাশ্বত চ্যাটার্জিও কথা বলতে ভুলে গিয়েছিলেন।

Link copied!