• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আগস্টে বিটিভির মাসব্যাপী বিশেষ আয়োজন


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: জুলাই ৩১, ২০২১, ০১:২৯ পিএম
আগস্টে বিটিভির মাসব্যাপী বিশেষ আয়োজন

স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এ বছরই বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞচিত্তে এই মহান নেতার জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপন করছে। তবে প্রতিবছর আগস্ট মাস আসে বাঙালির হৃদয়ে শোক আর কষ্টের দীর্ঘশ্বাস হয়ে। পুরো জাতি গভীর শোক ও শ্রদ্ধায় এই মহান ব্যক্তিত্বকে স্মরণ করে। জাতির জনকের স্মৃতির উদ্দেশে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে।

শোকাবহ এই আগস্ট মাস ঘিরে বাংলাদেশ টেলিভিশন মাসব্যাপী আয়োজন সাজিয়েছে, যা প্রচারিত হবে ১ আগস্ট থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত। এ ছাড়া ৫ আগস্ট শেখ কামালের জন্মদিন, ৮ আগস্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে এবং ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস স্মরণে রয়েছে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা। এক মেইল বার্তায় এমনটাই জানিয়েছে বিটিভির অনুষ্ঠান বিভাগ।

জানা যায়, ১ থেকে ১৪ আগস্ট পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা ১০ মিনিট এবং দুপুর দেড়টায় প্রচারিত হবে অনুষ্ঠান ‘কাঁদো বাঙালি কাঁদো’ এবং ‘হিরণ্ময় বঙ্গবন্ধু’। ১৩ থেকে ১৫ আগস্ট বিকাল ৫টা ১০ মিনিটে প্রচারিত হবে গান, কবিতার সমন্বয়ে বিশেষ শিশুতোষ অনুষ্ঠান। ১ থেকে ৩১ আগস্ট প্রতিদিন বিকাল ৫টা ৩৫ মিনিটে থাকছে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের ওপর অনুষ্ঠান ‘বজ্রকণ্ঠ’ এবং সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটে ও রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর প্রচারিত হবে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী এবং কারাগারের রোজনামচা থেকে পাঠ। ১১ থেকে ১৫ আগস্ট রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর প্রচারিত হবে ‘১৯৭৫-এর ১৫ আগস্ট—কেন এই নৃসংশতা’। এ মাসের প্রতি সোমবার ১০টার সংবাদের পর প্রচারিত হবে বিশেষ ‘লোক সংগীত’র অনুষ্ঠান। যে গানে উঠে আসবে বঙ্গবন্ধুর কথা।

৫ আগস্ট শেখ কামালের জন্মদিনে প্রচারিত হবে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান এবং প্রামাণ্য অনুষ্ঠান। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে ৮ আগস্ট রয়েছে একটি বিশেষ অনুষ্ঠান, প্রামাণ্য অনুষ্ঠান এবং আলোচনা অনুষ্ঠান।

জাতীয় শোক দিবস স্মরণে ১৫ আগস্ট রয়েছে দুটি সংগীতানুষ্ঠান, দুটি স্বরচিত কবিতা পাঠের অনুষ্ঠান এবং প্রামাণ্য অনুষ্ঠান। আরও আছে বিশেষ কবিতা নিয়ে আবৃত্তির দুটি অনুষ্ঠান। থাকছে ইকবাল খোরশেদের রচনা ও ঈমাম হোসাইনের প্রযোজনায় শোক দিবসের বিশেষ নাটক ‘দশটি কফিন ও ইফরানের গল্প’।

Link copied!