• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৪ মুহররম ১৪৪৫

ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা


শেরপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০২৪, ০৮:২৯ এএম
ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
আমিনুল ইসলাম। ছবি : সংগৃহীত

শেরপুরে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে আমিনুল ইসলাম (২৭) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। রোববার (২৩ জুন) বিকেলে সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের বাদাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আমিনুল ওই গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল হালিমের ছেলে। আমিনুল বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৭ মাস আগে সদর উপজেলার লছমনপুর ইউনিয়নের ইলশা গ্রামের চিন্টুর মেয়ে বিথী আক্তারকে বিয়ে করেন আমিনুল ইসলাম। তবে তিনি দীর্ঘদিন বেকার থাকায় তার স্ত্রী বেশিরভাগ সময় বাবার বাড়িতেই থাকতেন। সম্প্রতি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের একটি প্রজেক্টে কাজ শুরু করেন আমিনুল। এর মধ্যে তিনি বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। গত ১৯ জুন ময়মনসিংহের এক চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে কাউন্সিলিং ও ওষুধ সেবন শুরু করেন তিনি।

রোববার দুপুরে আমিনুল ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে নিজ বসতঘরের আড়ার সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেন। স্বজনরা তার ফেসবুক পোস্ট দেখে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে তাকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমিনুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে দুপুরে আমিনুল তার ফেসবুক আইডিতে একটি পোস্টে লেখেন, “আমি আমার সঠিক মস্তিষ্কে লিখে যাচ্ছি যে, আজ আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। এই বিষয়টা নিয়ে যেন কারো প্রতি কোন প্রকার চার্জ না করা হয় এবং কাউকে দায়ী না করা হয়। আমিনুল ইসলাম।

তার আগের একটি পোস্টে লেখেন, ‘ঝুলে গেলে মানুষ মরে যায়, নাকি বেঁচে যায়?’

এ ব্যাপারে শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক বলেন, নিহতের লাশ জেলা সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।
 

স্বদেশ বিভাগের আরো খবর

Link copied!