• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

মারা গেলেন সেই নারী পত্রিকা বিক্রেতা


রাজশাহী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৩, ২০২৩, ০৮:৫৪ পিএম
মারা গেলেন সেই নারী পত্রিকা বিক্রেতা

নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ জয়িতা ও রাজশাহীর একমাত্র নারী পত্রিকা বিক্রেতা দিল আফরোজ খুকি ওরফে খুকি আপা মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বৃহস্পতিবার (১৩ এপ্রিল) দুপুর আনুমানিক ১টা ২৫ মিনিটের দিকে নগরীর মিশনারিজ অব চ্যারিটি আশাদান মাদার তেরেসা আশ্রমে তার মৃত্যু হয়।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) শামীম আহমেদ তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, “তার ইচ্ছে অনুযায়ী নগরীর টিকাপাড়া কবরস্থানে বাদ মাগরিব দাফন করা হয়েছে।”

গত ১৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ৬টার দিকে নগরীর লক্ষ্মীপুর মোড় থেকে দিল আফরোজ খুকিকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালের ৩৭নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকদের পরামর্শে পরদিন (রোববার) সকালে তাকে ৭ নম্বর ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়। হাসপাতালে কোনো বিছানা না পাওয়ায় বারান্দাতেই তার চিকিৎসা চলছিল। পরদিন ১৮ ডিসেম্বর ‘পত্রিকা বিক্রি করা সেই খুকি আপা রামেক হাসপাতালে ভর্তি’ শিরোনামে বিভিন্ন মিডিয়াতে নিউজ প্রকাশ হলে বিষয়টি অনেকের সুনজরে আসে। পরে ১৯ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষে মেয়রপত্নী ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নারী নেত্রী শাহীন আকতার রেণী খুকিকে দেখতে যান। তিনি খুকির চিকিৎসার খোঁজ নেন এবং বেডের ব্যবস্থা করে দেন।

পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ২২ ডিসেম্বর তাকে রামেক হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউতে) পাঠানো হয়। সেখান থেকে চলতি বছরের ৭ জানুয়ারি তাকে সাধারণ ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। এরপর ১৯ ফেব্রুয়ারি রামেক হাসপাতাল থেকে মিশনারিজ অব চ্যারিটি আশাদান মাদার তেরেসা আশ্রমে পাঠানো হয় খুকিকে।

দিল আফরোজ খুকি রাজশাহী মহানগরীর একমাত্র নারী সংবাদপত্র বিক্রেতা। ষাটোর্ধ্ব এই নারী দিনভর পরিশ্রম করলেও অনেক কষ্টে জীবনযাপন করেন। ২০২০ সালে সোশ্যাল মিডিয়ায় খুকির জীবন-সংগ্রামের একটি ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার পর বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নজরে আসে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জেলা প্রশাসন খুকির পাশে দাঁড়ায়। এছাড়াও ২০২০ সালে শ্রেষ্ঠ জয়িতার পুরস্কার পান জীবন সংগ্রামের অদম্য এই নারী।

Link copied!