• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৪ শা’বান ১৪৪৫

এক ট্রলার ইলিশ ১৬ লাখ টাকায় বিক্রি


বরগুনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: আগস্ট ২৩, ২০২৩, ০৯:০৪ পিএম
এক ট্রলার ইলিশ ১৬ লাখ টাকায় বিক্রি

বরগুনার পাথরঘাটায় বঙ্গোপসাগরে এক ট্রলারে ৩৯ মণ ইলিশ ধরা পড়েছে। নিলামে ইলিশগুলো ১৬ লাখ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে।

বুধবার (২৩ আগস্ট) সকালে বরগুনার পাথরঘাটায় দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয় ট্রলারটি। ঘাটে নিলামের মাধ্যমে এসব ইলিশ বিক্রি করা হয়।

এফবি আরএস-২ নামের ট্রলারটির মালিক মো. আনোয়ার হোসেন। তিনি বরগুনা সদর উপজেলার ঢলুয়া ইউনিয়নের নলী বন্দর এলাকার বাসিন্দা।

ট্রলারের মালিক আনোয়ার হোসেন বলেন, “১১ জন জেলে নিয়ে আমার ট্রলারটি মাছ ধরতে সাগরে গিয়েছিল। এ সময় বিভিন্ন সাইজের ৩৯ মণ ইলিশ পাওয়া যায়। একসঙ্গে এত মাছ আমার ট্রলারে আর কোনো দিন ধরা পড়েনি। এর মাধ্যমে আমি ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারব। আর জেলেরাও লাভবান হবেন।”

এফবি আরএস-২ ট্রলারটির মাঝি মো. মনির বলেন, “পাথরঘাটা থেকে পাঁচ দিন আগে সাগরে মাছ শিকার করতে যাই। পাথরঘাটা থেকে পূর্ব দিকে গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকার করি। এ সময় আমাদের জালে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা পড়ে। প্রতিটি ইলিশের ওজন ৮০০ গ্রাম থেকে দেড় কেজি পর্যন্ত। মাছগুলো বড় তাই বেশি টাকায় বিক্রি করতে পেরেছি। আগামী দুই দিনের মধ্যে আবার সাগরে যাব ইলিশ ধরতে।”

পাথরঘাটা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা জয়ন্ত কুমার অপু বলেন, “৬৫ দিন নিষেধ থাকার পর প্রতিটি ট্রলার কম-বেশি ইলিশ পাচ্ছে। গত বছরের তুলনায় এবার সাগরে অনেক মাছ পাওয়া যাচ্ছে।”

বরগুনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ কুমার দেব বলেন, “গত ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত ৬৫ দিন গভীর সমুদ্রে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ছিল। এর সুফল হিসেবে এখন সাগরে গিয়ে জেলেরা বেশি পরিমাণ মাছ পাচ্ছেন।”

Link copied!