• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

হস্ত ও কুটির শিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হবে : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী


টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৩, ২০২৪, ১০:০১ পিএম
হস্ত ও কুটির শিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হবে : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

হস্ত ও কুটির শিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে টাঙ্গাইলের নাগরপুর সরকারি কলেজ মাঠ প্রাঙ্গণে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পাঁচ দিনব্যাপী ক্ষুদ্র কুটির শিল্প ও বৈশাখী মেলা উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হস্ত শিল্পকে বর্ষপণ্য হিসেবে ঘোষণা করেছেন। সেই ঘোষণার আলোকে আমরা একটি গ্রাম একটি পণ্য এই স্লোগানে সারা বাংলাদেশে তৃণমূল পর্যায়ে যেসকল কারিগর রয়েছে তাদের একত্রিত করে হস্ত ও কুটির শিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার। আগামী ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় স্টল করে দিয়ে উপস্থাপন করার সুযোগ করে দেব। আমাদের মূল লক্ষ্যই হলো হস্ত ও কুটির শিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া।”

আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, “আগে মানুষ পেটের দায়ে ক্ষুদ্র কুটির শিল্পের কাজ করত, কিন্তু এটা যে একটা শিল্প এবং এর থেকে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব সেই বিষয়টা মাথায় নিয়েই আমরা এই হস্ত ও কুটির শিল্পীদের ভবিষ্যতে প্রশিক্ষণের আওতায় নিয়ে আসব। আমরা বিশ্বাস করি তারা যথাযথ প্রশিক্ষণ পেলে তাদের উৎপাদিত পণ্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারবে। আর বর্তমান সরকার তাদের পাশে থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে রপ্তানি করতে সহযোগিতা করবে।”

টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “তাঁতের শাড়ি নিয়ে আমাদের বড় পরিকল্পনা রয়েছে। তাঁত শাড়ি মূল প্রধান কেন্দ্র হলো পাথরাইল। পাথরাইলকে আমরা পৌরসভা করতেছি। এটা হবে দেশের একমাত্র পণ্যভিত্তিক পৌরসভা। এটাকে নিয়ে আমাদের পরিকল্পনা আছে কারিগরি ও শিল্পীদের বাঁচিয়ে রাখা এবং এটাকে বাজারজাত করার জন্য আমরা পাথরাইলে সেল সেন্টার করব।”

নাগরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রেজা মো. গোলাম মাসুম প্রধানের সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন নাগরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আনিসুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সামিলাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিদুল ইসলাম অপু প্রমুখ। 

Link copied!