• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১, ১০ মুহররম ১৪৪৫

যৌতুকের জন্য নববধূকে হত্যা, স্বামী ও শ্বশুর আটক


ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মে ৭, ২০২২, ০৮:১৪ পিএম
যৌতুকের জন্য নববধূকে হত্যা, স্বামী ও শ্বশুর আটক

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার ভবানীপুরে যৌতুকের জন্য নববধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় শনিবার (৭ মে) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী ও শ্বশুরকে আটক করা হয়েছে।

বিয়ের পাঁচ মাস না যেতেই শুক্রবার (৬ মে) রাতে যৌতুকের টাকার জন্য মেয়েকে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন মা শাহানা বেগম।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভবানীপুর এলাকার আবুবকর ছিদ্দিকের ছেলে মো. শাহিন মিয়ার সঙ্গে পাঁচ মাস আগে জাফরনগর এলাকার ফারুক মিয়ার মেয়ে সোনিয়া বেগমের (১৯) পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে শাহিন বিদেশ যাবে বলে যৌতুক দাবি করেন। যৌতুক না পেয়ে সোনিয়াকে শুক্রবার (৬ মে) মধ্যরাতে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। শ্বশুর বাড়ি থেকে সোনিয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সুরতহাল রিপোর্ট শেষে লাশ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়েছে।

সোনিয়ার মা শাহানা বেগমের অভিযোগ, “বিয়ের দুমাস না যেতেই যৌতুকের টাকার জন্য নির্যাতন করে আসছে শাহিন ও তার পরিবার। শুত্রুবার মধ্যরাতে আমরা জানতে পারি সোনিয়ার লাশ গোসলখানার সামনে পরে আছে। বিয়ের পাঁচমাস না যেতে যৌতুকের জন্য ঘটে গেল এ হত্যাকাণ্ড।”

সোনিয়ার বাবা ফারুক মিয়া জানান, বিয়ের পর থেকে শাহিন বিদেশ যাবে বলে যৌতুক দাবি করে। তখন দেড় লাখ টাকা দেওয়া হয়। পরে আরও টাকা দাবি করে শাহিনের পরিবার। এনিয়ে মেয়ের সঙ্গে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরোধ চলছিল। তার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

ভৈরব থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আ. জব্বার জানান, লাশ থানায় নেওয়া হয়েছে। ঘটনার প্রকৃত কারণ উদঘাটনে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কিশারগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী শাহিন ও শ্বশুর আবুবক্করকে আটক করেছে পুলিশ।

Link copied!