• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪৫

টি-টোয়েন্টির জনপ্রিয়তায় বন্ধ হচ্ছে ‘দ্য হান্ড্রেড’


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৯, ২০২৩, ০৪:০২ পিএম
টি-টোয়েন্টির জনপ্রিয়তায় বন্ধ হচ্ছে  ‘দ্য হান্ড্রেড’

বিশ্বজুড়ে টি-টোয়েন্টি লিগের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। এই লিগের জনপ্রিয়তাকে টেক্কা দিতে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) ‍‍`দ্য হান্ড্রেড‍‍` নামে লিগের আয়োজন করেছিল। শুরুতে ব্যাপক সাড়া মিললেও টি-টোয়েন্টির জনপ্রিয়তার কাছে হার মানতে হয় এই সংক্ষিপ্ততম সংস্করণকে। সীমিত জনপ্রিয়তা এবং সম্প্রসারণের বিষয়ে উদ্বেগের কারণে প্রতিযোগিতাটিকে টি-টোয়েন্টি ইভেন্টে রূপান্তরিত করার বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। ফলে হান্ড্রেড ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ভবিষ্যত নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

ইসিবি শত বলের প্রতিযোগিতাকে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে রূপান্তর করার কথা ভাবছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে আলোচনা প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। তবে ১০০ বলের ক্রিকেট শুধুমাত্র যুক্তরাজ্যে খেলা হয়, যেখানে টি-টোয়েন্টি বিশ্বব্যাপী প্রসারিত হয়েছে। ইসিবি সম্ভাব্য ঘরোয়া সেটআপ সম্পর্কে প্রথম শ্রেণীর কাউন্টির সাথে আলোচনা করছে।

ভারতের আইপিএল বিশ্বব্যাপী সমাদৃত টুর্নামেন্ট। বিশ্বের নানান প্রান্ত থেকে সেরা তারকারা এই টুর্নামেন্টে খেলার জন্য মুখিয়ে থাকেন। এই টুর্নামেন্ট নিয়ে দর্শকমহলে আগ্রহও কম নয়। এছাড়া, সৌদি আরবও টি-টোয়েন্টি লিগে খরচ করতে আগ্রহ দেখাচ্ছে। 

টি-টোয়েন্টি সংস্করণ যেভাবে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে, তেমন হান্ড্রেড টুর্নামেন্ট পৌঁছাতে পারেনি। এই মাসের শুরুর দিকে একটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে যে, হান্ড্রেড দুই বছরে ৯ মিলিয়ন পাউন্ড হারিয়েছে। তবে ইসিবি জানিয়েছে যে এটি ১১.৮ মিলিয়ন পাউন্ড লাভ করেছে।

‘দ্য হান্ড্রেড’ নামের টুর্নামেন্টের প্রথম আসর বসে ২০২১ সালে। দ্বিতীয় আসরও সফলতার সাথে আয়োজিত হয়। তবে মোট আট দল নিয়ে শুরু হওয়া এই লিগ দর্শক তো দূরের কথা, ক্রিকেটারদেরও তেমন নজর কাড়তে পারেনি। ফ্রাঞ্চাইজিরা এই টুর্নামেন্ট থেকে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে ।

Link copied!