• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১,
এশিয়ান গেমস

পাকিস্তানকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জয় জ্যোতিদের


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২৩, ১১:১৩ এএম
পাকিস্তানকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জয় জ্যোতিদের
উইকেট নেওয়ার পর মারুফা আক্তারকে সতীর্থদের অভিনন্দন। ছবি: সংগৃহীত

এশিয়ান গেমসে নারী ক্রিকেট ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছে বাংলাদেশ। সেমিফাইনালে ভারতের বিপক্ষে হেরে নিগার সুলতানা জ্যোতিদের স্বর্ণ পদক জয়ের স্বপ্ন ভঙ্গ হয়। তবে তাদের সামনে ব্রোঞ্জ পদক জয়ের আশা তখনও টিকে ছিল। সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়ে সেই পদক জয় করেছে। এরই মধ্য দিয়ে ৮ বছরপর এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশ আবারও পদক জিতলো। গত আসর ২০১৮ সালে জাকার্তা এশিয়ান গেমসে পদক শূণ্য ছিল বাংলাদেশ।

গত আসরে এই টুর্নামেন্টে ক্রিকেট ইভেন্ট ছিল না। ২০১০ ও ২০১৪ সালে এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল রৌপ্য পেয়েছিল। সেই দুই আসরেই পাকিস্তানের বিপক্ষে হেরে স্বর্ণ হারিয়েছিল। এবার সেই পাকিস্তানকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জিতল জ্যোতিরা।

হাংজুর জিজিয়াং বিশ্ববিদ্যালয় ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ব্রোঞ্জ জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ৬৫ রান। সহজ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশকে ১৮ ওভার পর্যন্ত ব্যাটিং করতে হয়েছে। ৬৫ রান তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা ভালোই হয়েছিল। শামীমা সুলতানা ও সাথী রাণী ওপেনিং জুটিতে ২৭ রান আসলে পদক জয়ের সুবাস পেতে থাকে বাংলাদেশ। এরপর ৩৪ রানের মধ্যে তিন উইকেট পড়লে টাইগ্রেসরা একটু চাপে পড়ে যায়। তবে পরবর্তী ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে কোনো বিপদ হয়নি লাল সবুজের প্রতিনিধিদের।

পাকিস্তান স্পিনার নাশা সান্ধুর তিন উইকেট জ্যোতি, নাহিদা আখতারদের খানিকটা চাপে রাখে। পাকিস্তান বাজে ফিল্ডিং ও ক্যাচ ড্রপ না করলে জ্যোতিদের জয় পেতে আরো বেগ পেতে হতো। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা অবশ্য চাপে ভেঙে পড়েনি।

এর আগে ৩য় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশের অধিনায়ক জ্যোতি। আগের দিন বাংলাদেশের টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত বিস্মিত করেছিল সবাইকে। এবার আর সেই ভুল করলেন না টাইগ্রেস অধিনায়ক।

সেমিফাইনালে ভারতের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিং নিলেও আজ অবশ্য বোলিং নিয়েছে বাংলাদেশ। এই সিদ্ধান্ত বেশ কার্যকর হয়েছে। বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে পাকিস্তান ২০ ওভারে ৬৪ রানের মধ্যে বেঁধে ফেলে। টাইগ্রেস বোলারদের মধ্যে স্বর্ণা আক্তার তিনটি,সানজিদা মেঘলা দুইটি,মারুফা, নাহিদা একটি করে উইকেট নেন। পাকিস্তানের ব্যাটারদের মধ্যে আলীয়া রিয়াজ সর্বোচ্চ ১৭ রান করেন।

Link copied!