• ঢাকা
  • রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ৪ শাওয়াল ১৪৪৫

সেঞ্চুরি নয়, শান্তর আক্ষেপ ৫০ ওভার না খেলার


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১, ২০২৩, ১১:০৭ এএম
সেঞ্চুরি নয়, শান্তর আক্ষেপ ৫০ ওভার না খেলার
নাজমুল হোসেন শান্ত। ছবি : সংগৃহীত

বছরটা যেন নাজমুল হোসেন শান্তর জন্য স্বপ্নের মতোই কাটছে। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে যে চারটা অর্ধশতক পেয়েছেন এই ক্রিকেটার তার সবগুলোই এসেছে এই বছরে। একটা শতক আছে তার নামের পাশে, সেটাও এই বা-হাতি পেয়েছেন এই বছরেই, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে দলের অন্য ব্যাটাররা যখন ব্যাট হাতে ব্যর্থ, তখনি একাই লঙ্কান বোলারদের বিপক্ষে লড়াই চালিয়ে যান নাজমুল শান্ত। শতক থেকে ১১ রান দূরে থাকতে, থামতে হয় তাকে।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে শান্তর কণ্ঠে শতক না পাওয়ার আক্ষেপ ছিল না। ছিল অন্য কষ্ট। শান্ত বলেন, “না আক্ষেপ নেই, আক্ষেপ একটাই আছে, যদি আমি পুরো ৫০ ওভার ব্যাটিং করতে পারতাম। এটা যদি করতে পারতাম ভালো লাগত।”

লঙ্কান তারুণ্যে ভরা বোলারদের বিপক্ষে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পরে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন আপ। দলগতভাবে ভালো ব্যাটিং করতে না পারায় বাংলাদেশের এমন হার। বাংলাদেশের ব্যাটার এই বিষয়ে বলেন,“আমরা এমন বোলিংয়ের বিপক্ষেও ভালো করে এসেছি। আজকে হয়নি, আশা করি সামনের ম্যাচে ভালো হবে। উইকেট দেখে মনে হয়েছে আমাদের ব্যাটিং করা উচিত। আমরা সবাই ক্যাপ্টেন, কোচ একমত ছিলাম সিদ্ধান্তের ব্যাপারে।”

উইকেট খুব একটা সহজ ছিলনা ব্যাটসম্যানদের জন্য। তবে আমরা আরও একটু দায়িত্বশীল ব্যাটিং করতে পারতাম। শান্ত বলেন, “ আমরা ভালো ব্যাটিং করিনি। আমি বলব না উইকেট সহজ ছিল। কিন্তু আমরা চাইলে আরও ভালো ব্যাটিং করতে পারতাম।”

প্রথম ম্যাচ হেরে গেলেও শান্ত এখনও স্বপ্ন দেখছেন সুপার ফোর খেলার। টাইগার এই ব্যাটার বলেন, “অবশ্যই সম্ভব (সুপার ফোরে খেলা)। তবে এত দূর চিন্তা না করে আমাদের এখন পরের ম্যাচটা কীভাবে জিততে পারি, সেটা নিয়েই পরিকল্পনা করতে হবে, প্রস্তুতি নিতে হবে। আমরা ওই ম্যাচটা জেতার জন্যই খেলব। ম্যাচটা যদি জিতি, তাহলে কি পরিস্থিতি দাঁড়ায়, সেটা তখনই দেখা যাবে।”

পরের ম্যাচ বাংলাদেশের আফগানদের বিপক্ষে। কয়দিন আগেই আফগানদের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ওয়ানডে সিরিজ হারে বাংলাদেশ। তবে শান্ত অতীতে কি হয়েছে তা নিয়ে ভাবছেন না। বাহাঁতি এই ব্যাটসম্যান বলেন, “পরের ম্যাচ জেতার জন্যই খেলব। পরের ম্যাচ জেতার পর আসলে কী পরিস্থিতি দাঁড়াবে সেটা বোঝা যাবে। আমরা শেষ দুটি টি-টোয়েন্টি ভালো খেলেছিলাম ওদের সঙ্গে। ওয়ানডে সিরিজটি ভালো যায়নি। আমরা অতীতে কী হয়েছে এটা নিয়ে চিন্তিত নয়, আমাদের দল খুবই ভালো। আমরা বিশ্বাস করি আমরা যদি আমাদের সেরা খেলাটা খেলতে পারি তাহলে অবশ্যই আফগানিস্তানের সঙ্গে ভালো করা সম্ভব। “

শ্রীলঙ্কা থেকে শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) পাকিস্তানের উদ্দেশে রওনা হবে বাংলাদেশ দল।

Link copied!