• ঢাকা
  • বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ১১ শা’বান ১৪৪৫

প্রথমবারের মতো লিগস কাপের ফাইনালে মেসির মায়ামি


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১৬, ২০২৩, ১১:৪২ এএম
প্রথমবারের মতো লিগস কাপের ফাইনালে মেসির মায়ামি
ছবি : সংগৃহীত

লিগস কাপের সেমিফাইনালে ফিলাডেলফিয়া ইউনিয়নকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছে লিওনেল মেসির ইন্টার মায়ামি। এদিন ফিলাডেলফিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে মায়ামি।

বুধবার (১৬ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় ভোর সোয়া ৫টায় সুবারু পার্ক স্টেডিয়ামে মাঠে নামে ডেভিড বেকহ্যামের দল। এই ম্যাচের আগে মেসি অনুশীলনের সময় চোট পেয়েছিলেন বলে গুঞ্জন ছিল। সেই সব গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়ে তিনি শুরু একাদশেই মাঠে নামেন। এদিনও মায়ামির খেলোয়াড়রা ছিলেন উজ্জীবিত। তারা শুরু থেকেই প্রতিপক্ষের ওপর চাপ সৃষ্টি করে খেলেন। যার ফলে গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি তাদের। ম্যাচের ৩ মিনিটেই জোসেফ মার্তিনেজ গোল করে দলকে লিড এনে দেন।

প্রথম গোলের পর ফিলাডেলফিয়ার দ্বিতীয় গোল হজম করতেও বেশি সময় লাগেনি। ম্যাচের ২০ মিনিটের মাথায় মায়ামি স্কোরলাইন নিয়ে যায় ২-০তে। এবার গোল করেন মেসি ৩০ মিটার দূর থেকে মাটি কামড়ানো এক শটে। বাঁ দিকে ঝাঁপিয়েও বলের নাগাল পাননি ফিলাডেলফিয়া গোলরক্ষক। ইএসপিএন জানাচ্ছে মেসি ক্যারিয়ারে এর চেয়ে বেশি দূরত্ব থেকে মাত্র একটি গোলই করেছেন। এই নিয়ে আমেরিকান ক্লাবটির জার্সিতে মেসি টানা ৬ ম্যাচে ৯ গোল করলেন।

এরপর লিওরা তৃতীয় গোলের দেখা পান ম্যাচের প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে। এবার গোল করেন মেসির বার্সা সতীর্থ জর্দি আলবা। এই গোলে ৩-০ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ফিলাডেলফিয়া।

৩ গোলে পিছিয়ে বিরতি থেকে ফিরে ঘরের মাঠে গোল শোধ দেওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে ফিলাডেলফিয়া। তারাও মায়ামিকে বেশ চাপে রেখেছিল। ম্যাচে ৪৬ শতাংশ বল দখলে রেখে ১৬ বার শটের মধ্যে অন টার্গেট শট ৪টি। অন্যদিকে মেসিরা ৫৪ শতাংশ বল দখলে রেখে মাত্র ৫ বার শট নিতে পেরেছেন প্রতিপক্ষের দিকে। অবশ্য ৫ শটের মধ্যে তারা অন টার্গেট শট নিয়েছেন, যার চারটি থেকেই গোল আসে।

ফিলাডেলফিয়ার একমাত্র গোল আসে আলেজান্দ্রো বেদোয়ার কাছ থেকে। ফিলাডেলফিয়ার কফিনে শেষ পেরেকটি ঠোকেন ৮৪ মিনিটে ডেভিড রুইজ। তার গোলে ইন্টার মায়ামির ৪-১ গোলের বড় জয় নিয়ে লিগস কাপের ফাইনাল নিশ্চিত করে। ফাইনালের পাশাপাশি তারা প্রথমবারের মতো কনকাকাফ চ্যাম্পিয়ন লিগ খেলার যোগ্যতা অর্জন করলো।

১৯ আগস্ট ফাইনালে লিগা এমএক্স জায়ান্ট অথবা নাশভেলি এসসির মুখোমুখি হবে মায়ামি।

Link copied!