• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

পিছিয়ে পড়েও লিভারপুলের জয়, সালাহ-ক্লপের রেকর্ড


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২৩, ০১:২৫ পিএম
পিছিয়ে পড়েও লিভারপুলের জয়, সালাহ-ক্লপের রেকর্ড
ছবি: সংগৃহীত

অর্ধযুগ ধরে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার পর এবার ইউরোপা লিগে নেমে যেতে হয়েছে লিভারপুলকে। ৭ বছরপর ইউরোপা লিগ খেলতে নেমে জয় দিয়ে শুরু করেছে অলরেডরা। পিছিয়ে পড়েও লাস্ক লিনজেকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে তারা। লিভারপুলের জয়ের দিনে অলরেডদের হয়ে ইউরোপিয়ান ফুটবলে সর্বোচ্চ ৫০তম জয়ের রেকর্ড গড়লেন কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। আর এই ম্যাচে মিসরীয় ফুটবলার মোহাম্মদ সালাহ স্কোরশিটে নাম তুললে ইংলিশ ক্লাবের হয়ে ইউরোপের বড় টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড করেন।

রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) প্রিমিয়ার লিগের খেলা থাকায় এই ম্যাচে দ্বিতীয় সারির একাদশ নিয়ে মাঠে নামেন ক্লপ। লাস্কের ঘরের মাঠে ১৪ মিনিটেই পিছিয়ে যায় লিভারপুল। ক্লপের বেঞ্চের খেলোয়ড়রা গোল হজম করে প্রথমার্ধে সমতা ফিরাতে পারেনি। যার ফলে ১-০ গোলে পিছিয়ে থেকেই বিরতিতে যেতে হয় অলরেডদের।

ম্যাচে ফিরতে মরিয়া ক্লপ দ্বিতীয়ার্ধে অপেক্ষাকৃত তরুণদের তুলে এক–এক করে মাঠে নামান দারউইন নুনেজ, আলেক্সিস ম্যাক-অ্যালিস্টার ও ডমিনিক সোবোসলাইদের মতো তারকাদের। তাতে দলটার খেলার ধারও বেড়েছে। বিরতির পর ৫৬ মিনিটে পেনাল্টি থেকে লিভারপুলকে সমতায় ফেরান দারউইন নুনেস। ৬৩ মিনিটে লুইস দিয়াসের গোলে ব্যবধান বাড়ায় অলরেডরা।

শেষ মুহূর্তে গিয়ে স্কোরশিটে নাম লেখান সালাহ। দারুণ এক গোলে সাবেক আর্সেনাল তারকা থিয়েরি অঁরির রেকর্ডে ভাগ বসান তিনি। ইংলিশ ক্লাবের হয়ে ইউরোপের বড় টুর্নামেন্টে এত দিন সর্বোচ্চ ৪২ গোলের রেকর্ডটি অঁরির দখলে ছিল। শেষ পর্যন্ত ৩-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ক্লপের শিষ্যরা।

এদিন ইউরোপিয়ান ফুটবলে রাফায়েল বেনিতেসের সর্বোচ্চ ৪৯ ম্যাচ জয়ের রেকর্ডটি ক্লপ দখল করার পর জানান এতো ম্যাচ জিতে লাভ কি সবাই তো ঘৃণা করে। ক্লপ বলেন, “গ্রুপ পর্বের পরও যদি ৫০ (জয়) থাকে, এমনকি লিভারপুল কোচ হিসেবে ইউরোপে যদি সবচেয়ে বেশি ম্যাচও জিতি, তবু লোকে এটা ঘৃণা করবে। সর্বোচ্চ সংখ্যক ম্যাচ জিতলেও লোকে এটা ঘৃণা করবে।”

Link copied!