• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

নগর প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে ইন্টারের ২০তম শিরোপা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৩, ২০২৪, ০১:৪৪ পিএম
নগর প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে ইন্টারের ২০তম শিরোপা
শিরোপা উৎসবে ইন্টার মিলানের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা। ছবি : সংগৃহীত

ইতালির তারকাসমৃদ্ধ দল ইন্টার মিলান দেশটির প্রধান ফুটবল লিগ সিরি আ-তে বড় সফলতা পেল। নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এসি মিলানকে ২-১ গোলে হারিয়ে টুনামেন্টের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ বারের মতো শিরোপা জিতলো ইন্টার। এবারের শিরোপা জিতেছে দলটি ৫ ম্যাচ বাকি থাকতেই।

জিতলেই নিশ্চিত হবে শিরোপা, এমন সমীকরণ সামনে রেখেই মাঠে নেমেছিল ইন্টার।  সোমবার রাতে মাঠে নেমে শিরোপা ছোঁয়ার জন্য যেন তর সইছিল না ইন্টারের। ম্যাচের ১৮ মিনিটেই ফ্রান্সিসকো অ্যাসারবির গোলে এগিয়ে যায় তারা। তবে প্রথমার্ধে আর কোনো গোল না হওয়ায় ১-০ তে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমেই আবারও গোল করে ইন্টার। ৪৯ মিনিটে এসি মিলানের জাল কাঁপান মার্কাস থ্ররাম। এতে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ইন্টার।

তবে ৮০ মিনিটের সময় একটি গোল শোধ করে দেন এসি মিলানের ফিকায়ো তোমোরি।

অতিরিক্ত সময়ে শুরু হয় লালকার্ডের নাটকীয়তা। ৯৩ মিনিটে এসি মিলানের তোমারির এক ফাউলকে কেন্দ্র করে বাক-বিতণ্ডায় জড়ানোর দায়ে দুই দলের দুই খেলোয়াড়কে লালকার্ড দেখান রেফারি।

লালকার্ড দেখেন ইন্টারের ডেনজেল ডামফ্রাইস আর এসি মিলানের থিও হার্নান্দেজ।

এর ৪ মিনিট পর আবারও তর্ক-বিতর্ক। এবার লালকার্ড দেখেন এসি মিলানের ডেভিড ক্যালাবরিয়া। তিনি মাঠ ছাড়লে ৯ জনের দলে পরিণত হয় এসি মিলান। ফলে বাকি এক গোল আর এসি মিলানের পক্ষে শোধ করা সম্ভব হয়নি।

শিরোপা জিতে ইন্টার মিলানের আর্জেন্টাইন তারকা মার্টিনেজ বলেন, ‘আমি দলের খেলোয়াড়দের বলেছিলাম যে, আমরা নিজেদেরকে এমন পরিস্থিতিতে খুঁজে পেয়েছি যা আগে কখনো ঘটেনি। আমাদের এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করা দরকার ছিল। কারণ চারপাশে দেখুন, পুরো স্টেডিয়াম এখন আমাদের।’

Link copied!