নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে ভারত


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২৩, ১২:৪৮ এএম
নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে ভারত

হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর লক্ষ্যে প্রথমে ফিল্ডিং করতে নেমে শুরুতেই রোহিত শর্মা আর শুভমন গিলের তোপের মুখে পড়ে নিউজিল্যান্ড। তবে এই ওপেনারদের দাপটের পর দ্রুত কিছু উইকেট হারালেও শেষ পর্যন্ত ৩৮৫ রানের বিশাল সংগ্রহ পেয়েছিল ভারত।

এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ডেভন কনওয়ের শতকে লড়াই করলেও শেষ পর্যন্ত আর হার এড়াতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। কিউইদের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচে ভারতের জয় এসেছে ৯০ রানের ব্যবধানে। নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করে আইসিসির ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বরে উঠে এসেছে রোহিত শর্মার ভারত।

এদিকে ভারত সিরিজের আগে শীর্ষে ছিল নিউজিল্যান্ড। ভারতের বিপক্ষে ধবলধোলাই হয়ে চার নম্বরে নেমে গেছে কিউইরা।  পরের তিনটি স্থানে ইংল্যান্ড (১১৩ পয়েন্ট), অস্ট্রেলিয়া (১১২ পয়েন্ট), নিউ জিল্যান্ড (১১১ পয়েন্ট)। আর বাংলাদেশ আছে আগের সাত নম্বরেই।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি)  হলকার ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ভারতকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন রোহিত ও গিল। দু’জনের তাণ্ডবে ভারতের স্কোরবোর্ডে রান উঠেছে আলোর গতিতে। ৩৩ বলে ফিফটি করেন গিল আর রোহিতের পঞ্চাশ এসেছে ৪১ বলে।

সমান তালে চলে থাকা দু’জনেই ইনিংসের ২৬তম ওভারে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন। গিলের সেঞ্চুরি এসেছে ৭২ বলে আর রোহিতের ৮৩ বলে। এর আগে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতেও ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন গিল।

ইনিংসের ২৭তম ওভারে দলীয় ২১২ রানে রোহিত ফিরলে ভাঙে তাদের ওপেনিং জুটি। ফেরার আগে ৮৫ বলে ৯ চার ও ছয় ছক্কায় ১০১ রানের ইনিংস আসে তার ব্যাট থেকে।

অধিনায়ক ফেরার পরে ওভারে ফিরে যান রোহিতও। এ ম্যাচে গিল খেলেছেন ১৩ চার ও পাঁচ ছক্কায় ৭৮ বলে ১১২ রানের ইনিংস।

এরপর হার্দিক পান্ডিয়ার ৫৪, বিরাট কোহলির ৩৬ ও শার্দুল ঠাকুরের ব্যাট থেকে আসে ২৫ রানের ইনিংস। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩৮৫ রানের সংগ্রহ পেয়েছিল ভারত।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ফিন অ্যালেনের উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। তবে এরপর হ্যানরি নিকোলসের সঙ্গে ১০৬ রানের জুটি গড়েন ডেভন কনওয়ে।

দলীয় ১০৬ রানে ব্যক্তিগত ৪২ রান করে নিকোলস ফিরলে ভাঙে তাদের জুটি। এরপর ড্যারি মিচেলকে নিয়ে আবারও ৭৮ রানের জুটি গড়েন কনওয়ে। দুর্দান্ত ব্যাটিং করতে থাকা কনওয়ের সেঞ্চুরি এসেছে ৭১ বলে।

এরপর পরপর দুই বলে মিচেল ও টম ল্যাথামকে ফিরিয়ে নিউজিল্যান্ডকে চাপে ফেলে দেন ভারতীয় বোলার শার্দুল ঠাকুর। দলীয় ২৩০ রানে কনওয়ে ফিরলে ম্যাচ থেকেই ছিটকে যায় নিউজিল্যান্ড। ফেরার আগে ১০০ বলে ১২ চার ও আট ছক্কায় ১৩৮ রানের ইনিংস খেলেছেন কনওয়ে।

শেষ পর্যন্ত ৮.৪ ওভার বাকি থাকতে ২৯৫ রানেই অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। এতে করে ৯০ রানের ব্যবধানে জয় নিশ্চিত হয় ভারতের।

Link copied!