• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ৮ শাওয়াল ১৪৪৫

নাসিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আইসিসির


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২৩, ০৪:৫১ পিএম
নাসিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আইসিসির
বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটার নাসির হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবি টি-টেন লিগে ৮ জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এনেছে আইসিসি। ২০২১ সালে এই টুর্নামেন্টে দুর্নীতির চেষ্টা করেছিল ক্রিকেটার ও ক্রিকেট সংশিষ্ট ব্যক্তিরা। এই ৮ জনের মধ্যে রয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটার নাসির হোসেনও।

মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জানায়, আমিরাত ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) পক্ষ থেকে এ অভিযোগ গঠন করেছে তারা। নাসিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতিবিরোধী কোডের তিনটি ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে। বাংলাদেশের এই ক্রিকেটার ছাড়াও খেলোয়াড় ও অফিসিয়াল মিলিয়ে মোট ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে আইসিসি।

নাসিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে আইসিসি, দুর্নীতিবিরোধী ২.৪.৩ ধারায় তদন্তের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাকে (ডিএসিও) ৭৫০ ডলার মূল্যের উপহার নেওয়ার বিষয়টি জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন।

২.৪.৪ ধারায় তদন্তের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিকে দুর্নীতি বা ম্যাচ ফিক্সিংয়ের কোনো প্রস্তাব তিনি পেয়েছিলেন কি না, তাকে কোনোভাবে প্ররোচিত করা হয়েছিল কি না তা পরিষ্কার করে বিস্তারিত জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন।

২.৪.৬ ধারায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি সম্ভাব্য দুর্নীতিতে যুক্ত ছিলেন এমন তদন্তের বিষয়ে দুর্নীতির তদন্তে থাকা কর্মকর্তাকে তদন্তে সহযোগিতা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

নাসির ছাড়াও দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজির অংশীদার পরাগ সাংভি ও ক্রিশান কুমার চৌধুরী। ব্যাটিং কোচ আজহার জাইদি, ঘরোয়া ক্রিকেটার রিজওয়ান জাভেদ, সিলিয়া সামান ও সহকারী কোচ শাদাব আহমেদের বিরুদ্ধে আইসিসি দুর্নীতির অভিযোগ এনেছে।

আবুধাবি টি-টেন লিগে ২০২১ সালে পুনে ডেভিলসের হয়ে খেলেছিলেন নাসির। সঙ্গে তিনি দলটার অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। সেই আসরে নাসিরের দল গ্রুপ পর্বে ৬ ম্যাচে ২ জয়ে ৮ দলের মধ্যে সবার শেষে থেকে টুর্নামেন্ট শেষ করেছে। ভালো করতে পারেননি নাসির নিজেও।  

২০১৮ সালে সর্বশেষ জাতীয় দলের জার্সিতে খেলেছিলেন নাসির হোসেন। এরপর আর দেশের জার্সিতে দেখা যায়নি তাকে। সর্বশেষ বিপিএলে ভালো পারফরম্যান্সের কারণে জাতীয় দলে ফেরার গুঞ্জনও শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু সেটা আর হয়ে ওঠেনি।
 

Link copied!