• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

আর্জেন্টিনায় বাংলাদেশের নামে ফুটবল ক্লাব


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ৯, ২০২৩, ০৪:৪৬ পিএম
আর্জেন্টিনায় বাংলাদেশের নামে ফুটবল ক্লাব

লাতিন আমেরিকার দেশ আর্জেন্টিনার ভক্তের অভাব নেই বাংলাদেশে। সেই ১৯৮৬ সালের দিয়েগো ম্যারাডোনা থেকে শুরু করে মেসিদের ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা বেড়েই চলেছে। কাতার বিশ্বকাপে দলটিকে গলা ফাটিয়ে সমর্থন দিয়েছে বাংলাদেশিরা। সেই খবর ফিফাসহ বিভিন্ন খেলাখুলা বিষয়ক ওয়েবসাইট প্রকাশ করেছে। অকুণ্ঠ সমর্থনের জন্য বাংলাদেশে চালু হয়েছে আর্জেন্টিনার দূতাবাস। এবার বাংলাদেশের সমর্থকদের ভালোবাসার জবাব দিতে আর্জেন্টিনায় একটি ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেছে মেসির দেশের চারজন উদ্যোক্তা।

কাতার বিশ্বকাপে ফ্রান্সকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতে মেসির আর্জেন্টিনা। তিন যুগ পর বিশ্বকাপ জেতার পর বাংলাদেশি সমর্থকদের ধন্যবাদ জানায় দেশটির ফুটবল ফেডারেশন (এএফএ)। প্রশংসায় ভাসিয়ে প্রাণঢালা ধন্যবাদ জানিয়েছেন আর্জেন্টাইনরা। তবে এবার ভালোবেসে লাল-সবুজের দেশটির নামে ক্লাবই প্রতিষ্ঠা করে ফেলেছেন তারা। ক্লাবটির নাম দেপোর্তিভো বাংলাদেশ। তবে নামেই না, ক্লাবটির জার্সিতেও বাংলাদেশের ছাপ রয়েছে।

আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সে দেপোর্তিভো বাংলাদেশ নামের ক্লাবটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। তবে ক্লাবটির মালিকদের সবাই আর্জেন্টাইন। ক্লাবটির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা লিয়ান্দ্রো গাল্লিচিও অনেক আগ থেকে বাংলাদেশের একজন ভক্ত।

দেপোর্তিভো বাংলাদেশ ক্লাবের জার্সিতে তিনজন মহান ব্যক্তির ছবি যুক্ত করা হয়েছে। জার্সির দুই পাশে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আর্জন্টিনার স্বাধীনতার স্থপতি সেইন্ট মার্টিনের ছবি রয়েছে। আর এই মহান ব্যক্তির মাঝে রয়েছেন আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার ডিয়োগো ম্যারাদোনার ছবি। এছাড়া ক্লাবের জার্সি আর ব্যাজেও আছে লাল-সবুজ পতাকা, মানচিত্র ও ইতিহাস। জার্সিতে এমনভাবে ছবি যুক্ত করার কারণ হিসেবে দলটির প্রতিষ্ঠাতারা জানিয়েছেন, দুই জাতির জনকের মাঝে ম্যারাদোনার ছবি দেওয়ার কারণ, ফুটবলের এই ‍‍`ঈশ্বরের‍‍` মাধ্যমেই দুই দেশের ভালোবাসা শুরু হয়।

ক্লাবটির একজন সহ-প্রতিষ্ঠাতা জানান, বাংলাদেশের মানুষের ভালোবাসার রঙ মাখিয়ে ক্লাবটির নামকরণ করা হয়েছে। তাদের ভালোবাসার প্রতিদানস্বরুপ আমরাও কিছুটা দিতে চায়। তবে তারা বাংলাদেশের কোনো ক্লাবের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচও খেলার ইচ্ছা পোষণ করেছেন। ক্লাবটির প্রতিষ্ঠাতারা বাংলাদেশের প্রতিভাবান ফুটবলারদের খেলাতে ইচ্ছুক। কারণ বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নয়নে তারা সরাসরি অংশগ্রহণ করতে চান। ক্লাবটির সহ-প্রতিষ্ঠাতাদের একজন জানান, তাদের পরিকল্পনা বাংলাদেশ থেকে খেলোয়াড় আসবে এবং এই ক্লাবে খেলবে।

বাংলাদেশের নামে ফুটবল ক্লাব গড়ে তোলার ব্যাপারে আর্জেন্টিনাত থাকা এক প্রবাসী বাংলাদেশি বলেন, আর্জেন্টিনার প্রতি বাংলাদেশের মানুষের যে ভালোবাসা ,সেটা আর্জেন্টাইনরা মনে রাখতে চান। এজন্য তারা ক্লাবটি প্রতিষ্ঠা করেছে।

Link copied!