• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৫ শা’বান ১৪৪৫

অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ খুললেন ফাওয়াদ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১০, ২০২৩, ০৪:৪০ পিএম
অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ খুললেন ফাওয়াদ
ফাইল ছবি

কয়েকদিন আগেই খবর বেরিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে খেলতে যাচ্ছেন ফাওয়াদ আলম। এমন খবরে খুব একটা বিস্মিত হয়নি কেউই। কারণ এই বাঁহাতির বয়সযে এখন ৩৮। হঠাৎ একদিন পরই ফাওয়াদ জানালেন এখনি ক্রিকেট ছাড়ছেন না তিনি।

১৫ বছরের পাকিস্তানি ক্যারিয়ারে মাত্র ৮১টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন ফাওয়াদ। অথচ অভিষেক হয়েছিল ২০০৭ সালে। লাল বলের ক্রিকেটে অভিষিক্ত হয়েছিলেন আরও দুই বছর পর, সে ম্যাচ রাঙিয়ে নিয়েছিলেন সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে। এরপরে দল থেকে বাদ পড়ে ১১ বছর পর আবার দলে ফেরত আসেন এই ব্যাটসম্যান।

ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো করছিলেন। ঘরের লিগে ৫৫ গড়ে রান করা ফাওয়াদ আন্তর্জাতিক ম্যাচে ফিরলেন লাল বলে, ২০২০ সালে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করে ফিরে আসেন তৃতীয় ম্যাচেই। পরবর্তীতে সাউথ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়ের সঙ্গেও শতক হাঁকান তিনি। তবে এরপর আর জাতীয় দলের হয়ে আর খেলার সুযোগ হয়নি তার। তাই সকলে ভেবেই নিয়েছিল, অবসর নিচ্ছেন পাকিস্তানের এই ক্রিকেটার।

তবে ফাওয়াদের অবসরের খবর প্রকাশের পরের দিনই (বুধবার) জিও নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে পাকিস্তান ক্রিকেট ছেড়ে দেয়ার খবর অস্বীকার করেছেন ফাওয়াদ। সেই সাক্ষাৎকারে ফাওয়াদ বলেন, ‘এ (অবসর) বিষয়ে আমি চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নিইনি। আমি পাকিস্তানের ক্রিকেটের সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করিনি, অবসরের সিদ্ধান্তও নিইনি। আমি এখনো ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশগ্রহণের বিষয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সামনের এক–দুই বছরও খেলা চালিয়ে যাওয়া লক্ষ্য আমার, আমি চাই পেশাদার ক্যারিয়ারকে দীর্ঘায়িত করতে।’

গত বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪ ইনিংস খেলে মাত্র ৩৩ রান সংগ্রহ করেন ফাওয়াদ আলম। একই বছর জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কার সঙ্গেও পারফর্ম্যান্সে উন্নতি ছিল না। এরপরেই তার সুযোগ বন্ধ হয়ে যায়। ১৯ টেস্ট, ৩৮ ওয়ানডে, ২৪ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ফাওয়াদ। টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ৫টি। ২০১৪ এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও সেঞ্চুরি ছিল তার।

Link copied!