• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

মহারাজের ইতিহাসে ঘরের বাইরে সিরিজ জয় প্রোটিয়াদের 


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুলাই ১৫, ২০২১, ০৭:৫২ পিএম
মহারাজের ইতিহাসে ঘরের বাইরে সিরিজ জয় প্রোটিয়াদের 

ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বেশ দাপটের সাথেই জয় পাচ্ছিলো দক্ষিণ আফ্রিকা। ভাঙা গড়ার মধ্যে দিয়ে চলতে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ পুরো সিরিজেই একবারও দুইশ ছুঁতে পারেনি। তবে সেই টেস্টের ফলাফলে উত্তেজনা যোগ করলেন কেশব মহারাজ। তার হ্যাট্রিকের সুবাদেই দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ জিতে চার বছরের বেশি সময় পর দেশের বাইরে সিরিজ জিতলো প্রোটিয়ারা। 

চার বার ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাওয়া স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম টেস্ট এবং দ্বিতীয় টেস্টের রান যথাক্রমে ৯৭, ১৬২, ১৪৯ এবং ১৬৫! তাদের ৪০ উইকেটের মধ্যে ৩০ উইকেট নিয়েছেন লুঙ্গি এনগিডির মতো পেসাররাই। স্পিনারদের মধ্যে দ্বিতীয় টেস্টের পারফরম্যান্সে উজ্জ্বল হয়ে রইলেন ভারতীয় বংশদ্ভূত বাঁহাতি স্পিনার কেশব মহারাজ। 

প্রথম ইনিংসে ২৯৮ রানের ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়েও মাত্র ১৪৯ রানে সবগুলো উইকেট হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১৮৯ রানের লিড পাওয়ার পর প্রোটিয়ারাও বিপদে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে। শেষ পর্যন্ত র‍্যাসি ভ্যান ডার ডুসেনের মান বাঁচানো ৭৪ এবং পেসার কাগিসো রাবাদার দায়িত্বশীল ৪০ রানের ইনিংসে ৩২৪ রানের লক্ষ্য দাঁড় করায় দক্ষিণ আফ্রিকা। 

এমন লক্ষ্য তাড়া ক্যারিবীয়দের জন্য কঠিনই ছিলো। তবে শেষ ইনিংসে অর্ধশত রান করে ক্যারিবীয়দের সম্ভাবনা দেখানো কিরন পাওয়েল, জেসন হোল্ডার এবং জোশুয়া দা সিলভাকে ফিরিয়ে হ্যাট্রিক করেন কেশব। ১৯৬০ সাল থেকে একমাত্র প্রোটিয়া হিসেবে টেস্টে হ্যাট্রিকের ইতিহাসে নাম লেখা ছিলো জেফ গ্রিফিনের। লর্ডসের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যাট্রিক করেন তিনি। এরপর দ্বিতীয় হ্যাট্রিকের দেখা পেতে প্রোটিয়াদের অপেক্ষা করতে হলো ৬১ বছর! 

ম্যাচ শেষে ৫ উইকেট নিলেও দুই ইনিংস মিলিয়ে পাঁচ উইকেট নিয়ে এবং ব্যাট হাতে ৪০ রান করে মান বাঁচিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন রাবাদা। দুই টেস্টে ব্যাট হাতে পথ দেখিয়ে সিরিজসেরা কুইন্টন ডি কক। দল হিসেবে খেলে যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েই ঘরের বাইরে চার বছরের বেশি সময় পর সিরিজ জিতলো মার্ক বাউচারের দল। তাই আগামী পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে মানসিকভাবে এগিয়ে থাকবে প্রোটিয়ারাই, এটুকু নিশ্চিত।

Link copied!