• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৪ শা’বান ১৪৪৫

ঘুমাতে না দিলেই বিপদ!


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ৭, ২০২৩, ০৫:৩৫ পিএম
ঘুমাতে না দিলেই বিপদ!

শরীরের জন্য ঘুম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ঘুমের ঘাটতি মানেই আপনি অচল হয়ে যাবেন ধীরে ধীরে। শারীরিক স্বাস্থ্যের জন্য ঘুম যেমন প্রয়োজন তেমনি মানসিক স্বাস্থ্যের জন্যেও উপকারীও বটে। চিকিৎসকেরা পরামর্শ দেন, সুস্থ থাকতে নিয়মিত ৮ ঘণ্টা ঘুমানো খুবই জরুরি।

আর এই সাধের ঘুমে যদি কেউ ব্যাঘাত ঘটাতে আসে তাহলে তার নামে মামলা করে দিতে পারবেন। তবে আমাদের দেশে এই আইন না থাকলেও প্রতিবেশী দেশ ভারতে আছে এমনই এক আইন। সেখানে মানুষের ঘুমের অধিকারের কথা বলা হয়েছে।

ভারতে এটি একটি মৌলিক অধিকার। দেশটির সংবিধানের ২১নং অনুচ্ছেদে প্রত্যেক নাগরিকের কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই শান্তিতে ঘুমানোর অধিকার রয়েছে। অনুচ্ছেদ ২১-এর ‘জীবন ও ব্যক্তিগত স্বাধীনতার অধিকার’-এর অধীনে ঘুমের অধিকার একটি মৌলিক অধিকার হিসাবে স্বীকৃত হয়েছে। সংবিধানের অনুচ্ছেদ ২১ অনুসারে ‘আইন দ্বারা প্রতিষ্ঠিত পদ্ধতি ব্যতীত কোনো ব্যক্তিকে তার জীবন বা ব্যক্তিগত স্বাধীনতা থেকে বঞ্চিত করা হবে না’।

২০১২ সালে দিল্লিতে বাবা রামদেবের সমাবেশে ঘুমন্ত জনতার ভিড়ের ওপর পুলিশি পদক্ষেপের একটি মামলার শুনানি করার সময় সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় যে পুলিশদের এই পদক্ষেপ মৌলিক অধিকারের লঙ্ঘনের সামিল।

ঘুমকে মৌলিক মানবাধিকার হিসেবে উল্লেখ করার সময় সুপ্রিম কোর্ট আরও বলেছে, ‘একজন মানুষের জন্য তার অস্তিত্ব এবং বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যের সূক্ষ্ম ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য ঘুম অপরিহার্য। তাই ঘুম একটি মৌলিক প্রয়োজন যা ছাড়া জীবনের অস্তিত্বই বিপদে পড়বে।

চিকিৎসকেরা বলেন, একজন ব্যক্তির স্বাভাবিক ঘুমে ব্যাঘাত হলে তা থেকে নানান স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেমন মানসিক ভারসাম্যহীনতা, বদহজম এবং কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যকেও প্রভাবিত করে।

Link copied!