• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৪ মুহররম ১৪৪৫

ঈদে ট্রেন্ডি পোশাকে ছেলেরা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৪, ২০২২, ০৩:০০ পিএম
ঈদে ট্রেন্ডি পোশাকে ছেলেরা

ঈদের কেনাকাটা চলছে পুরো রমজান মাসজুড়েই। নারীরা সবসময়ই মার্কেট ঘুরবে এবং  টুকটাক কিনতেই থাকবে। অন্যদিকে ছেলেরা একদমই ভিন্ন। তাদের শপিং হবে ঝটপট। যা পছন্দ হবে ঝটপট কিনে ফেলবে। যদিও ছেলেদের পোশাকের ভ্যারিয়েশন নারীদের পোশাকের তুলনায় কম। তাই তাদের পছন্দে মিলে গেলেই কিনে নিচ্ছে।

ঈদ শপিংয়েও একদম তাই হয়। রমজানের শেষের দিকে শুরু হয় তাদের কেনাকাটা। এই সময়  পাঞ্জাবি, শার্ট, ফতুয়া, জুতো ও স্যান্ডেলের মার্কেটেও ভিড় বাড়ে। ঈদের বাজারে ছেলেদের ট্রেন্ডি পোশাকের কালেকশনও দেখা যায়। মেয়েদের পোশাকের মতো ছেলেদের পোশাকেও সমকালীন জনপ্রিয় কোনো সিনেমা বা ভাইরাল কোনো কিছুর নাম জুড়ে দেওয়া হয়। দেখা যায়, সেসব পোশাকেই আগ্রহ দেখাচ্ছেন ছেলেরা।

তবে অধিকাংশ ছেলেই ব্র্যান্ডের পোশাক পরতে পছন্দ করেন। ফ্যাশন হাউজগুলোর কালেকশন থেকে নিজেদের পছন্দ বেছে নেন। ট্রেন্ডের সঙ্গে মিলিয়ে ফ্যাশনও পাল্টে নেন। তবে ছেলেদের ঈদ পোশাকে বেশি ভ্যারিয়েশন আনা হয় পাঞ্জাবি আর স্যান্ডেলে। এবারও ব্যতিক্রম নয়। ফ্যাশনহাউজগুলোসহ পাইকারি, খুচরা দোকানেরও এখন বাহারি পাঞ্জাবির কালেকশন রয়েছে।

ঈদ ট্রেন্ডে ছেলেদের পোশাক কালেকশনে এবারের আয়োজনে যা রয়েছে_

পাঞ্জাবি

ছেলেদের ঈদ পোশাক মানেই পাঞ্জাবি। গরমে ঈদ হওয়ার কারণে আরামদায়ক কাপড়ের উপর এবার নকশা করা হয়েছে। ফ্যাশন হাউজে লিনেন, সুতি, রিমি কটন, ফাইন কটন পাঞ্জাবির কালেকশন দেখা যায়। সেই সঙ্গে প্রাধান্য পেয়েছে হালকা রঙ। সাদা, আকাশি,হালকা সবুজ রঙের ছোঁয়া দেখা গেছে। তবে গতানুগতিক চাহিদার কথা মাথায় রেখে লাল, মেরুন, কালো রঙের পাঞ্জাবিও এখন মার্কেট জুড়ে রয়েছে। ঈদের আমেজ ফুটিয়ে তুলতে অ্যাম্ব্রোয়েডারি ও সুই-সুতার কাজের কিংবা কারুচুপি হালকা নকশার পাঞ্জাবি চোখে পড়ছে। আরও রয়েছে গলায় ও হাতায় ভিন্ন কাপড়ের বর্ডার দেওয়া নকশা, বাটন প্লেটে কাজ, বুকের একপাশে নকশা করা পাঞ্জাবি। তাছাড়া তরুণদের পছন্দের তালিকায় বরাবরের মতো রয়েছে প্লেইন ডিজাইনের সিম্পল পাঞ্জাবি। এসব পাঞ্জাবি শুধু বড়দের জন্যই  নয়, ছোটদের জন্যও রয়েছে। আবার বাবা-ছেলের ম্যাচিং পাঞ্জাবিও দেখা গেছে মার্কেটজুড়ে।

কাবলি স্যুট

কাবলি স্যুট

ঈদে পাঞ্জাবির মতো কাবলি স্যুটের প্রতিও থাকে ছেলেদের বিশেষ আকর্ষণ। একরঙা কাবলি স্যুটের মধ্যে ভ্যারিয়েশন রয়েছে এবারও। গলায় ও হাতের অংশে নকশা করা কাবলি স্যুট বেছে নিচ্ছেন অনেকে। কাবলি তৈরিতে বিশেষ কাপড় ব্যবহার করা হয়। যা বেশ আরামদায়ক। তাই গরমে অধিকাংশ ছেলেই কাবলি স্যুটে ঝুঁকছেন। নাগালের মধ্যে দামটাও পাওয়া যায়। ১২০০ থেকে শুরু করে ব্র্যান্ডের দোকানের কাবলি স্যুট পেয়ে যাবেন ৬৫০০০ টাকার মধ্যেই। 

ঈদ পোশাক

ফিউশান লুক

ঈদের নামাজের জন্য পাঞ্জাবি আর ঘুরে বেড়ানোর জন্য অন্য পোশাকও কিনছেন ছেলেরা। এক্ষেত্রে তরুণদের পছন্দ ফিউশন লুক। এই বছর শার্টের রং ও  নকশায় ভিন্নতা এসেছে। শার্টের কলার, হাতাতেও এসেছে পরিবর্তন। শার্টের কলারের ভেতরের অন্য রঙের কাপড় দিয়ে ক্যাজুয়াল শার্টগুলোতে এখন ফ্যাশনেবল লুক আনা হয়েছে। হাতার কাফেও থাকছে একই নকশা। তাছাড়া প্রিন্টেড শার্টে ছাপা নকশার কোনো একটা রং বেছে নিয়ে দেওয়া হচ্ছে গলা কিংবা হাতায়। দুই রং বা দুই রকমের নকশা করা কাপড় দিয়ে বানানো হচ্ছে শার্ট। এমনকি শার্টের টিকিং ব্যবহার করে বদলে দেওয়া হচ্ছে ফ্যাশনের লুক।

আরামদায়ক ও হালকা রঙের শার্ট

গরমে ঈদ। তাই তরুণদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে দেশীয় সুতি কাপড়ের তৈরি করা শার্ট। সুতি কাপড়ের মধ্যেই বিভিন্ন নকশার শার্টে বেছে নিচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রাধান্য পেয়েছে হালকা রঙগুলোও। গোলাপি, নীল, সাদা, লেবু, হলুদ, কমলা, ছাই বা সবুজ রঙের শার্টের ট্রেন্ড চলছে এখন। আবার ঢিলেঢালা কাটিংয়ে একটু লম্বা শার্ট বেশি চলছে। শার্টের কাপড়, বোতাম এবং ডিজাইনে ডোরাকাটা, চেকের ব্যবহারে ভিন্নতা দেখা গেছে এবারের আয়োজনে।

দুই ধরনের প্রিন্ট শার্ট

দুই ধরনের প্রিন্ট করা শার্টও পাওয়া যাচ্ছে এবার। বডিতে এক ধরনের প্রিন্ট আর দুই হাতায় থাকছে আরেক নকশা। বডির ফ্লোরাল বা জ্যামিতিক নকশা জুড়ে দিলে হাতায় রাখা হয়েছে ছোট ছোট বল প্রিন্ট। আবার হাতা ও বডিতে কালার কন্ট্রাস্ট রেখেও ডিজাইন করা হয়েছে ঈদ কালেকশনে। 

ডেনিম

পুরুষের ঈদ ফ্যাশনে ডেনিম সব সময়ই আধুনিক। ডেনিমের শার্ট ও প্যান্টের দিকে ঝোঁক বেশি থাকে তরুণদের। টি-শার্টের ওপর ডেনিমে শার্ট ছেলেদের সব সময়ের ট্রেন্ডি পোশাক।

pant

প্যান্টের ডিজাইন

ঈদে ছেলেদের প্যান্টের ক্ষেত্রে গ্যাবার্ডিনের চিনো পাওয়া যাচ্ছে। পার্টিতে ডেনিম অনেকেই পরেন না। এটা এখন ক্যাজুয়াল পোশাক হয়ে গেছে। গ্যাবার্ডিনের চিনো তাই বেশি জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। তাছাড়া গরমে বেলবটম, ন্যারো কাটিং, স্ট্রেইট কাট প্যান্টও পাওয়া যাচ্ছে।

জুতা

জুতো-স্যান্ডেল

ঈদ কালেকশনে ছেলেদের জন্য স্যান্ডেলেও ভ্যারিয়েশন রাখা হয়। পাঞ্জাবি সঙ্গে স্যান্ডেল কেনা হবেই। তাই স্যান্ডেলের কালেকশনে কালো ও খয়েরি রংকে প্রাধান্য দেওয়া হয়। এগুলো সব পাঞ্জাবির সঙ্গে মানিয়ে যায়। অন্যদিকে ফরমাল লুকে সঙ্গে পরতে কালো চামড়ার জুতো কিনতে পারেন। এটি এখন বেশ ট্রেন্ডি। আভিজাত্যে লুক দিবে আপনাকে। তবে জুতো বা স্যান্ডেল কেনার সময় পায়ের গড়ন আর চেহার ও পোশাকের সঙ্গে মানানসই হচ্ছে কতটা তা দেখে নিন। সেই সঙ্গে আরামদায়ক কিনা তা দেখে নিতেও ভুলবেন না।

Link copied!