• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ১১ শা’বান ১৪৪৫

রুশ নারীদের কমপক্ষে ৮টি সন্তান নেওয়ার আহ্বান পুতিনের


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১, ২০২৩, ০৮:১৬ পিএম
রুশ নারীদের কমপক্ষে ৮টি সন্তান নেওয়ার আহ্বান পুতিনের
ভ্লাদিমির পুতিন। ফাইল ফটো

নিজ দেশের নারীদের প্রত্যেককে ৮ কিংবা তারও বেশি সন্তান নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এ ছাড়া বড় পরিবারের প্রথাও ফিরিয়ে আনতে বলেছেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) মস্কোতে আয়োজিত ওয়ার্ল্ড রাশিয়ান পিপলস কাউন্সিলে একটি ভিডিওবার্তায় পুতিন এ আহ্বান জানান।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম দ্য ইনডিপেনডেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৯৯০ সালের পর থেকেই রাশিয়ায় জন্মের হার হ্রাস পাচ্ছে। সে সঙ্গে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে দেশটির তিন লাখের বেশি মানুষ হতাহত হয়েছে। এমন অবস্থায় জনসংখ্যা বাড়ানোকে আসছে দশকে রাশিয়ার অন্যতম লক্ষ্য বলে অভিহিত করেছেন পুতিন।

পুতিন বলেন, “আমাদের অনেক জাতিগোষ্ঠী চার, পাঁচ বা তারও বেশি সন্তান নেওয়ার পারিবারিক ঐতিহ্য রক্ষা করে আসছে। আসুন আমরা মনে রাখি সেসব রুশ পরিবারের কথা; যেখানে আমাদের পূর্বপুরুষের সাত, আট বা তারও বেশি সন্তান ছিল।”

পুতিন আরও বলেন, “আসুন আমরা এই চমৎকার ঐতিহ্যগুলোকে সংরক্ষণ ও পুনরুজ্জীবিত করি। বড় পরিবারগুলো রুশ জনগণের জন্য আদর্শ এবং জীবনযাত্রার অন্যতম মাধ্যম হয়ে উঠবে। পরিবার শুধু রাষ্ট্র ও সমাজের ভিত্তি নয়, এটি আমাদের নৈতিকতার উৎস। রাশিয়ার জনসংখ্যা সংরক্ষণ এবং বৃদ্ধি করা আগামী কয়েক দশকজুড়ে আমাদের এবং সামনের প্রজন্মের জন্যও অন্যতম লক্ষ্য। এটি সহস্রাব্দ প্রাচীন ও চিরন্তন রুশ বিশ্বের ভবিষ্যৎ।”

রাশিয়ার অর্থোডক্স চার্চের প্রধান প্যাট্রিয়ার্ক কিরিল এই সম্মেলনের আয়োজন করেন এবং রাশিয়ার বেশ কয়েকটি ঐতিহ্যবাহী সংস্থার প্রতিনিধিরা এতে অংশ নেন।

রুশ প্রেসিডেন্টের মন্তব্যে ইউক্রেন যুদ্ধে রুশ সেনাদের হতাহতের মাত্রার সরাসরি উল্লেখ না থাকলেও অনেক সংবাদমাধ্যমই দুই ঘটনাকে যুক্ত করেছে।

যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনে মৃতের সংখ্যা প্রায় তিন লাখ ছাড়িয়েছে। রি-রাশিয়া নামের এক স্বাধীন গবেষণা সংস্থার মতে, আনুমানিক ৮ লাখ ২০ হাজার থেকে ৯ লাখ ২০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

Link copied!