• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৩ মুহররম ১৪৪৫

ঈদ মাতাবে শাকিবের ‘তুফান’সহ পাঁচ সিনেমা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ১৬, ২০২৪, ১১:০৬ এএম
ঈদ মাতাবে শাকিবের ‘তুফান’সহ পাঁচ সিনেমা
ঈদের সিনেমার পোস্টার: ছবি: সংগৃহীত

এবারের ঈদ মাতাবে  সুপারস্টার শাকিব খানের ‘তুফান’সহ পাঁচ সিনেমা । ঈদ উৎসবে ঢালিউডে পাঁচটি ছবি মুক্তির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। মুক্তির তালিকায় থাকা চূড়ান্ত ছবি হচ্ছে ‘তুফান’, ‘রিভেঞ্জ’ ‘ময়ূরাক্ষী’, ‘আগন্তুক’, ‘ডার্ক ওয়ার্ল্ড’।

মাসখানেক আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল, ঈদুল ফিতরের মতো এবারও ডজনখানেক ছবি মুক্তি পাবে। শেষ মুহূর্তে এসে সম্ভাব্য মুক্তির তালিকা থেকে সরে আসে বাকি সব ছবি। প্রযোজক-পরিচালকদের কেউ বলেছেন, শুটিং শেষ করতে পারেননি, তাই ঈদে আসা হচ্ছে না। কেউ বলেছেন, এত ছবির ভিড়ে না এসে পরে আসাটাই ভালো হয়।

এখন সিনেমার প্রচার-প্রচারণার সবচেয়ে বড় মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। মুক্তির আগমুহূর্তে এসে পাঁচ ছবির ট্রেলার, গান, নিত্যনতুন পোস্টার পর্যায়ক্রমে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামে প্রকাশ করে দর্শক টানার চেষ্টা করছে সংশ্লিষ্ট সব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে ‘তুফান’, ‘রিভেঞ্জ’ ‘ময়ূরাক্ষী’সহ অন্য ছবিগুলোর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আবার তাদের শিল্পী-কলাকুশলীদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলনও করেছে। সেখানে ছবির নানা দিক নিয়েও তারা কথা বলেছে, জানিয়েছে কেন তাদের ছবি প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে উপভোগ করা উচিত।

এবার ছবির সংখ্যা কম হওয়ার পাশাপাশি গত বছরের তুলনায় প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যাও কিছুটা কমতে পারে। কারণ হিসেবে জানা গেছে, ফরিদপুরের রাজিয়া, নওগাঁর মল্লিকাসহ কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ হয়ে গেছে। সেই দিক থেকে নিয়মিত ও অনিয়মিত মিলে মোট হলের সংখ্যা দেড় শ থাকতে পারে। গত ঈদুল ফিতরে ১৬২টি হলে ঈদের সিনেমাগুলো মুক্তি পেয়েছিল। এবার বেশির ভাগ প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হবে এখন পর্যন্ত আলোচনার শীর্ষে থাকা শাকিব খানের ‘তুফান’। রায়হান রাফী পরিচালিত ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন ভারতের মিমি চক্রবর্তী, বাংলাদেশের চঞ্চল চৌধুরী, নাবিলা, মিশা সওদাগর, ফজলুর রহমান বাবু প্রমুখ।

‘তুফান’ ছবিটি প্রযোজনা করেছে আলফা-আই স্টুডিওজ লিমিটেড, ডিজিটাল পার্টনার চরকি ও ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিবিউটর হিসেবে আছে এসভিএফ। ছবিটির দেশীয় পরিবেশনা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানিয়েছেন, মাল্টিপ্লেক্সসহ ১২০টির বেশি হলে ‘তুফান’ মুক্তি পাবে। তিনি বলেন, ‘ফিক্সড, পারসেন্টেজ, এমজি—যেখানে যেভাবে ছবি চলে, সেভাবেই প্রেক্ষাগৃহে ছবি দেওয়া হচ্ছে। আশা করছি ১২০-এর ওপরে হল পাবে ‘তুফান’।’ চলচ্চিত্র বিশ্লেষকেরা বলছেন, এটিই এই ঈদের সবচেয়ে বড় আয়োজনের ছবি। এই সিনেমায় নিজেকে ভেঙেচুরে দর্শকদের সামনে ভিন্ন রূপে হাজির হচ্ছেন শাকিব খান। রায়হান রাফীর নির্মাণের মুনশিয়ানা নিয়েও দর্শকদের মধ্যে আলাদা আগ্রহ রয়েছে।

দুই বছর আগে শুটিং শুরু হয় ‘রিভেঞ্জ’ ছবির। এই ছবির মাধ্যমে আবারও বড় পর্দায় জুটি হন রোশান ও বুবলী। মোহাম্মদ ইকবাল পরিচালিত ‘রিভেঞ্জ’ ছবিটি খুলনা, নওগাঁ, ফরিদপুর ও মেলান্দহের ১২টি একক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে, এমনটাই জানিয়েছে প্রেক্ষাগৃহ বুকিংয়ের দায়িত্বে থাকা প্রযোজক ও পরিবেশক কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়া। তিনি বলেন, ‘এখনো এক দিন বাকি আছে ঈদ। ১২টি একক প্রেক্ষাগৃহ পেয়েছি। আশা করছি এর মধ্যে মাল্টিপ্লেক্সে কিছু শো পাব আমরা।’

২০২২ সালে শ্যামল মাওলা ও পূজা চেরীকে নিয়ে ওয়েব ফিল্ম আকারে শুটিং শুরু হয় ছবিটির। দীর্ঘ সময় নিয়ে তিন ধাপে ছবিটির শুটিং শেষ করা হয়। এখন শোনা যাচ্ছে, ঈদুল আজহায় এটি এখন সিনেমা আকারে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে। তবে ছবির পরিচালক সুমন ধর বললেন, ‘প্রথম ধাপে শুটিং করার তিন দিনের মাথায় আমরা এটিকে সিনেমা আকারে নির্মাণের প্রস্তুতি নিই। সেই সময় ইউনিট আরও বড় করি।

সিনেমা আকারে শুটিং শুরু করি। কিন্তু একটা পর্যায়ে গিয়ে ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এন্টারটেইনমেন্ট একাত্তর বাজেট সমস্যায় পড়ে। দুই ধাপ কাজ শেষ করার পর শুটিং বন্ধ হয়ে যায়। পরে আরেক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান অভি কথাচিত্র এসে বিনিয়োগ করে।’ ছবিটি কোনো একক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে না।

ছবির পরিবেশনা প্রতিষ্ঠান অভি কথাচিত্র সূত্রে জানা গেছে, স্টার সিনেপ্লেক্স, ব্লকবাস্টার, লায়ন সিনেমাসসহ ৯টি মাল্টিপ্লেক্সে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। একই পরিবেশক প্রতিষ্ঠান থেকে মুন্না খান ও কলকাতার কৌশানী অভিনীত ‘ডার্ক ওয়ার্ল্ড’ ছবিটি যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমাস ছাড়াও ময়মনসিংহের পূরবী, ফতুল্লার বনানী, জয়পুরহাটের নাজমাসহ ১২টি একক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে। মোস্তাফিজুর রহমান মানিক ছবিটির পরিচালক।

রঙিন দুনিয়ার অন্তরালের গল্প নিয়ে রাশিদ পলাশ নির্মাণ করেছেন ‘ময়ূরাক্ষী’। এতে রুপালি পর্দার নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইয়ামিন হক ববি। গত বছর সেপ্টেম্বরে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল সিনেমাটির। কিন্তু শেষ মুহূর্তে পিছিয়ে দেওয়া হয় মুক্তি। অবশেষে আসছে ঈদুল আজহায় মুক্তি দেওয়া হচ্ছে ছবিটি।

শুধু মাল্টিপ্লেক্সে দেখা যাবে ববি অভিনীত এই ছবি। ছবিটি পরিবেশনার দায়িত্বে আছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, শুধু স্টার সিনেপ্লেক্স, ব্লকবাস্টার সিনেমাস, লায়ন সিনেমাসসহ মাল্টিপ্লেক্সগুলোতে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি।
চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট কেউ কেউ মনে করছেন, মুক্তির তালিকায় ছবির সংখ্যা কম থাকার কারণে ব্যবসা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে টানা বৃষ্টি বা অতিরিক্ত গরম আবহাওয়ার কারণে ঝুঁকিও মনে করছেন তাঁরা।
 

Link copied!