• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে যুবকের মৃত্যু


নোয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২৩, ১২:৫৬ পিএম
ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে যুবকের মৃত্যু

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে মোশারফ হোসেন (৪৩) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। বুধবার (৬  সেপ্টেম্বর) ভোরে উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ভূঁইয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মোশারফ হোসেন সদর উপজেলার ধর্মপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ মোস্তফার ছেলে। তার বিরুদ্ধে নোয়াখালী-ফেনীসহ বিভিন্ন থানায় ১০টি মামলা রয়েছে।  

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. ইদ্রিস জানান, বুধবার রাত তিনটার দিকে উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মালয়েশিয়া প্রবাসী সাইফুদ্দিনের ঘরে সিঁধ কেটে একদল ডাকাত প্রবেশ করে। ওই সময় পরিবারের সদস্যরা ঘরে ছিলেন না। তবে বিষয়টি টের পান প্রতিবেশী জুনায়েদ। তিনি সাইফুদ্দিনের বড় ভাই বাহার উদ্দিন মিজানকে মোবাইল ফোনে সিঁধ কাটার বিষয়টি অবহিত করেন। খবর পেয়ে মিজান তার ভাইয়ের ঘরে ছুটে যান। সেখানে অস্ত্রধারী ডাকাত দল মিজানকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। মিজানের চিৎকার শুনে জুনায়েদ এগিয়ে এলে ডাকাত দল তাকেও ছুরিকাঘাতে আহত করে। ওই সময় অন্য ডাকাতেরা নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন এসে মোশারফ হোসেনকে আটক করে গণপিটুনি দেন। এত ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রণব চৌধুরী বলেন, এটি ডাকাতির ঘটনা নয়, চুরির ঘটনা। চুরি করতে গিয়ে এক চোর গণপিটুনিতে মারা যায়। বেলা ১১টার দিকে পুলিশ মরদেহ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের বিরুদ্ধে নোয়াখালী-ফেনীসহ বিভিন্ন থানায় ১০টি মামলা রয়েছে।    

Link copied!