• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৩ মুহররম ১৪৪৫

পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া, বেড়া ভেঙে পুকুরে পড়ে শাশুড়ির মৃত্যু


মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২৪, ০৫:২২ পিএম
পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া, বেড়া ভেঙে পুকুরে পড়ে শাশুড়ির মৃত্যু

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে পারিবারিক কলহের জেরে পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া করছিলেন শাশুড়ি। ঝগড়ার একপর্যায়ে ঘরের বেড়া ভেঙে পাশের পুকুরে পড়ে মৃত্যু হয় শাশুড়ি হোসনে আরার (৪৫)। এ ঘটনার কয়েক ঘন্টা পর পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

বুধবার (১২ জুন) গভীর দিকে উপজেলার বোলতলী ইউনিয়নের সুরপাড়া এলাকায় এঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুত্রবধু লিমা আক্তারকে (২৪) পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

নিহত হোসনেআরা স্থানীয় মো. বাবুল শেখের স্ত্রী।  

স্থানীয়রা জানান, বুধবার রাত ১০ টার দিকে পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পুত্রবধূ লিমা আক্তারের সাথে শাশুড়ি হোসনে আরার কলহ চলছিলো। পরে রাত ১২টার দিকে কলহের জেরে বউ-শাশুড়ি হাতাহাতিতে লিপ্ত হলে একপর্যায়ে দুজনই বসতঘর ভেঙে ঘরের নিচে পুকুরে পড়ে যায়। এসময় লিমা কোনোমতে উপরে উঠতে পারলেও ডুবে যায় হোসনে আরা। পরে এলাকাবাসী তাদেরকে উদ্ধারের জন্য চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে লৌহজং ফায়ার সার্ভিসকে ফোন দিলে ফায়ার সার্ভিস রাত ৩টার দিকে মৃত অবস্থায় শাশুড়িকে পুকুর থেকে উদ্ধার করে।

নিহতের মেয়ে নাসরিন বেগম বলেন, “বড় ভাই আরিফ শেখ প্রবাসে থাকায় ভাবী লিমা আক্তার পরকিয়ায় লিপ্ত ছিলেন। এর আগে বহুবার লিমার অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে স্বামী ও শাশুরির সাথে ঝগড়া হয়েছিলো। সেই জেরে সুযোগ বুঝে আমার মাকে হত্যা করে পানিতে পড়ার নাটক সাজিয়েছে।”

এ বিষয়ে লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার ইমাম হোসেন বলেন, “পারিবারিক কলহের জেরে ঝগড়ার সময় তারা পানিতে পড়ে যাওয়ার খবর পেয়েছি। পরে ফায়ার সার্ভিস নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। মৃতু্র কারণ নিশ্চিত হতে তদন্ত চলছে।”

স্বদেশ বিভাগের আরো খবর

Link copied!