• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

মৃত্যুর আগে বাবাকে ফোন করে আকুতি জানিয়েছিলেন লামিশা


ফরিদপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মার্চ ২, ২০২৪, ০৯:৫২ এএম
মৃত্যুর আগে বাবাকে ফোন করে আকুতি জানিয়েছিলেন লামিশা

রাজধানীর বেইলি রোডে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডে নিহত বুয়েট শিক্ষার্থী লামিশা ইসলামকে (২৩) ফরিদপুরে দাফন করা হয়েছে। লামিশা পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি নাসিরুল ইসলাম শামীমের মেয়ে। মৃত্যুর আগে বাবাকে ফোন করে বাঁচার আকুতি জানিয়েছিলেন লামিশা। কিন্তু তাকে জীবিত উদ্ধার করা যায়নি।

শুক্রবার (১ মার্চ) বাদ জুমা ফরিদপুরের চকবাজার জামে মসজিদে জানাজা শেষে তাকে আলীপুর গোরস্থানে দাফন করা হয়। এ সময় কান্নায় ভেঙে পরেন স্বজনসহ পরিচিতরা।

এর আগে চকবাজার মসজিদে অনুষ্ঠিত জানাজায় সদর আসনের এমপি একে আজাদ, জেলা প্রশাসক কামরুল আহসান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোর্শেদ আলম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামীম হক, সাধারণ সম্পাদক শাহ মো. ইশতিয়াক আরিফ, ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকীসহ সরকারি কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মুসুল্লিরা অংশ নেন। শহরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিপুলসংখ্যক মানুষ জানাজায় অংশ নিতে ছুটে আসেন।

এদিকে, আলীপুর গোরস্থানে লামিশাকে দাফন শেষে অতিরিক্ত ডিআইজি মো. আলিমুজ্জামানের নেতৃত্বে জেলা পুলিশ এবং ইন্সপেক্টর সুনীল কুমার কর্মকারের নেতৃত্বে পিবিআইর পক্ষ থেকে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় তার কবরে।

এর আগে এদিন বেলা পৌনে ১১টার দিকে পুলিশের লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সে লামিসার মরদেহ ফরিদপুর শহরের দক্ষিণ ঝিলটুলীর বাড়িতে আনা হয়। এ সময় সেখানে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

নিহত লামিশার চাচা রফিকুল ইসলাম সুমন সাংবাদিকদের বলেন, “বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বান্ধবীদের সঙ্গে লামিশা বেইলি রোডের সাততলা ভবনের ‘কাচ্চি ভাই’ নামের খাবারের দোকানে যায়। এরপর সে ফোন করে তার বাবাকে জানায়, ‘বাবা আগুন লাগছে আমাকে বাঁচাও’। খবর পেয়ে দ্রুত তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালানো হয়। তবে তারপর থেকে যতবারই আমরা তার মোবাইলে ফোন করেছি, সেটি বন্ধ পেয়েছি। এরপর রাত সাড়ে ১১টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তার মরদেহ উদ্ধার করে।”

নিহত লামিশা বুয়েটের মেকানিক্যাল ডিপার্টমেন্টের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। ভিকারুন্নেসা থেকে এসএসসি ও হলিক্রস থেকে এইচএসসি পাশ করে সে। দুই বোনের মধ্যে লামিসা বড়। ছোট বোন রাইসা এ বছর ভিকারুন্নেসা কলেজ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। অসুস্থতাজনিত কারণে ২০১৮ সালে মারা গেছেন লামিশার মা আফরিনা মাহমুদ মিতু। এরপর ছোট বোন আর বাবাকে আগলে রাখতেন লামিশা।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ৪৫ মিনিটের দিকে বেইলি রোডে বহুতল ভবনে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিটের চেষ্টায় রাত ১১টা ৫০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

Link copied!