• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৩ মুহররম ১৪৪৫

হজের নামে প্রতারণা, কারাগারে ২ জন


নীলফামারী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২৪, ০৮:৫৩ পিএম
হজের নামে প্রতারণা, কারাগারে ২ জন
হজের নামে প্রতারণার করায় ২ জন গ্রেপ্তার। ছবি: সংগৃহীত

নীলফামারী সদরে হজের নামে প্রতারণা করায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। বিকেলে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন সৈয়দপুর উপজেলার দক্ষিণ সোনাখুলি কামিল মাদ্রাসার প্রভাষক মো. নুরুল্যাহ বুলবুল (৪২)। তিনি জেলা সদরের ইটাখোলা ইউনিয়নের উত্তরাশষী গ্রামের বাসিন্দা। অপরজন হলেন একই ইউনিয়নের সিংদই গ্রামের মো. আবু সাঈদ ওরফে জমির হাফেজ (৪৭)।

পুলিশ জানায়, হজে যাওয়ার জন্য সদর উপজেলার কুখাপাড়া গ্রামের কাজী রায়হানুজ্জামান রোমান (৩৮) ও তার মা কাজী সেবেকা হক বকুল (৫৬) দিয়া ইন্টারন্যাশনাল হজ এজেন্সির মোয়াল্লেম মো. নুরুল্যাহ বুলবুল ও মো. আবু সাঈদ ওরফে জমির হাফেজের হাতে দুই দফায় ১২ লাখ ৪২ হাজার টাকা তুলে দেন।

পরে তাদের পাসপোর্টসহ অন্যান্য কাগজ গ্রহণ করে এজেন্সির মাধ্যমে প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়। এরপর হজে পাঠানোর সময় শেষ হলেও নানা অজুহাত দেখিয়ে সময়ক্ষেপণ করলে প্রতারণার বিষয়টি প্রকাশ পায়। এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা দায়েরের পর বৃহস্পতিবার তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মামলার বাদী কাজী রায়হানুজ্জামান রোমান বলেন, “হজে পাঠানোর জন্য তারা গত বছরের ১৫ নভেম্বর তিন লাখ ৮২ হাজার টাকাসহ আমার এবং মায়ের পাসপোর্ট গ্রহণ করেন। বিশ্বাস স্থাপনের জন্য দিয়া ইন্টারন্যাশনাল হজ এজেন্সির মাধ্যমে প্রশিক্ষণ প্রদান করে আমাদের।

এরপর চলতি জুন মাসের মাসের ৫ তারিখে ফ্লাইটের কথা বলে ১৪ মে সকালে চেকের মাধ্যমে আট লাখ ৬০ হাজার টাকা গ্রহণ করেন। পরে প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে টাকা ফেরত চাইলে আমাকে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করেন।”

এ বিষয়ে নীলফামারী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভিরুল ইসলাম বলেন, “এ বিষয়ে থানায় মামলা হলে তাদের গ্রেপ্তার করে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সহদেব চন্দ্র রায়ের আদালতে পাঠানো হয়। বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।”

স্বদেশ বিভাগের আরো খবর

Link copied!