• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৩ মুহররম ১৪৪৫

শরীয়তপুরের ৩০ গ্রামে ঈদুল আজহা পালন


শরীয়তপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ১৬, ২০২৪, ০৩:০১ পিএম
শরীয়তপুরের ৩০ গ্রামে ঈদুল আজহা পালন

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে একদিন আগেই শরীয়তপুরের সুরেশ্বর দরবার শরীফে হাজারো মুসল্লির অংশগ্রহণে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। নামাজ শেষে বিশ্ব উম্মাহর জন্য শান্তি কামনা করেছেন দরবার শরীফের ভক্ত-অনুরাগী মুসল্লিরা।

রোববার (১৬ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় দরবার শরীফের ঈদগাহ মাঠে পৃথকভাবে দুইটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

জামাত দুটিতে ইমামতি করেছেন শাহ সুফি সৈয়দ বেলাল নূরী আল সুরেশ্বরী ও মাওলানা মো. জুলহাস উদ্দিন। এতে বিভিন্ন জেলা থেকে আগত ভক্ত ও সুরেশ্বর দরবার শরীফের আশেপাশের ৩০ গ্রামের প্রায় ৩ হাজার মুসল্লি অংশ নেন।

জানা যায়, জান শরীফ শাহ সুরেশ্বরী নামে এক সুফি সাধক কর্তৃক শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় প্রতিষ্ঠিত সুরেশ্বর পাক দরবার শরীফের কয়েক লাখ ভক্ত ও অনুরাগী রয়েছেন সারা দেশে। পিরোজপুর, ভোলা, মাদারীপুর, চাঁদপুর, নারায়ণগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর, ময়মনসিংহ, নেত্রকোণাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা এসব ভক্ত ও অনুরাগীরা ১৯২৮ সাল থেকে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে বাংলাদেশের একদিন আগেই ঈদসহ ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালন করে থাকেন।

এর মধ্যে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার সুরেশ্বর, কেদারপুর, চাকধ্, চন্ডিপুর ও ভেদরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ দারাগড়সহ ৩০ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লি মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে আজ রোববার পবিত্র ঈদুল আজহা পালন করছেন।

মাদারীপুর থেকে সুরেশ্বর দরবার শরীফে ঈদের নামাজ আদায় করতে এসেছেন বিল্লাল হোসেন। তিনি সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “বাবা সুরেশ্বরীর দরবারের মাটিতে পা রাখলে আমার অন্তর শীতল হয়ে যায়। পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করলাম। নামাজ শেষে সকলের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেছি। এখন বাড়িতে গিয়ে কোরবানি করব।”

আব্দুল সাত্তার নামে স্থানীয় এক মুসল্লি সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “আমার বাপ-দাদাও সুরেশ্বর দরবার শরীফের নিয়ম মেনে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালন করতেন। আমরা তাদেরই ধারাবাহিকতায় ধর্ম পালন করে থাকি। পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করলাম। এখন সকলের সঙ্গে কুশল বিনিময় শেষে তবারক খাব।”

নামাজ শেষে সংবাদ প্রকাশের সঙ্গে কথা হয় দরবার শরিফের প্রশাসনিক কর্মকর্তা (প্রধান খাদেম) মুনসুর আলী মৃধার। তিনি বলেন, “শরীয়তপুরসহ বিভিন্ন জেলার প্রায় তিন হাজার ভক্ত-অনুসারী সুরেশ্বর দরবার শরীফে অনুষ্ঠিত পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজে অংশ নিয়েছেন। সারা দেশে সুরেশ্বর দরবার শরীফের প্রায় ১০ লাখ ভক্ত রয়েছে। এর মধ্যে ৫০ হাজারেরও বেশি অনুসারী নিজ নিজ এলাকায় ঈদের নামাজের মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন।“

সুরেশ্বর দরবার শরীফের গদীনশীন পীর শাহ মুজাদ্দেদী সৈয়দ তৌহিদুল হোসাইন শাহিন নূরী সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ আদায় শেষে বিশ্ব উম্মাহর জন্য শান্তি কামনা করছেন ভক্ত-অনুসারীরা। এভাবে ঈদুল আজহা উদযাপন প্রায় ১০০ বছরের ঐতিহ্য। সবাইকে সুরেশ্বর পাক দরবার শরীফের পক্ষ থেকে পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা।”

স্বদেশ বিভাগের আরো খবর

Link copied!